Engineer's Solutions

The Site is Engineering and Science Related

৩০ তম বিসিএস প্রিলিমিনারি টেস্ট

বাংলা

১. চর্যাপদ আবিষ্কৃত হয় কোথা থেকে?

(ক) বাঁকুড়ার এক গৃহস্থের গোয়াল ঘর থেকে        (খ) আরাকার রাজগ্রন্থাগার থেকে

(গ) নেপালের রাজগ্রন্থশালা থেকে                    (ঘ) সুদূর চীন দেশ থেকে

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ বাংলা সাহিত্যের প্রাচীন যুগের একমাত্র নিদর্শন ‘চপদ’। ‘চর্যাপদ’ হলো গানের সংকলন, যা রচনা করেন বৌদ্ধ সহজিয়াগণ। মহামহোপাধ্যায় হরপ্রসাদ শাস্ত্রী নেপালের রাজগ্রন্থশালা তথা নেপালের রয়েল লাইব্রেরী থেকে ১৯০৭ খ্রিষ্টাব্দে ‘চর্যাপদ’ আবিষ্কার করেন।

২. মঙ্গলযুগের সর্বশেষ কবির নাম কি?

(ক) বিজয়গুপ্ত    (খ) ভারতচন্দ্র রায়গুণাকর          (গ) মুকুন্দরাম চক্রবর্তী  (ঘ) কানাহরি দত্ত

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ বাংলা সাহিত্যের সময়কালকে তিন ভাগে ভাগ করা হয়েছে। এর মধ্যে মধ্যযুগ বলতে ১২০১ থেকে ১৮০০ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত সময়কালকে বোঝায়। ভারতচন্দ্র রায়গুণাকরের জীবনকাল ১৭১২ থেকে ১৭৬০ খ্রিষ্টাব্দ। তিনি আঠার শতকের মঙ্গলকাব্য ধারার শ্রেষ্ঠ কবি। তিনি ছিলেন নবদ্বীপের রাজা কৃষ্ণচন্দ্রের সভাকবি। তার শ্রেষ্ঠ কীর্তি ‘অন্নদামঙ্গল’ কাব্য (১৭৫২-৫৩) রচনা। তাকে মধ্যযুগের শেষ বড় কবি বলা হয়।

৩. বিদ্যাপতি কোথাকার কবি ছিলেন?

(ক) নবদ্বীপের   (খ) মিথিলার     (গ) বৃন্দাবনের  (ঘ) বর্ধমানের

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ মিথিলার কবি বিদ্যাপতি (১৩৭৪-১৪৬০) বৈষ্ণব সহজিয়া সাধকদের নবরসিকের অন্যতম। তিনি বাংলায় একটি পঙক্তি না লিখেও বাঙালিদের কাছে একজন শ্রদ্ধেয় কবি। ‘মৈথিল কোকিল’ ও ‘অভিনব জয়দেব’ নামে খ্যাত বিদ্যাপতি বৈষ্ণব কবি ও পদসঙ্গীত ধারার রূপকার। তিনি মিথিলার মীতাময়ী মহকুমার বিসফিগ্রামে জন্মগ্রহন করেন।

৪. শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্যের বড়াই কি ধরনের রচনা?

(ক) শ্রী রাধার ননদিনী    (খ) শ্রী রাধার শাশুড়ি     (গ) রাধাকৃষ্ণের প্রেমের দূতী     (ঘ) জনৈক গোপবালা

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ মধ্যযুগের আদি কবি বড়ু চন্ডীদাস লোকসমাজে প্রচলিত রাধাকৃষ্ণ প্রেম-সম্পর্কিত গ্রাম্য গল্প অবলম্বনে ‘শ্রীকৃষ্ণকীর্তন’ কাব্য রচনা করেন। ১৯০৯ খ্রিষ্টাব্দে বসন্তরঞ্জন রায় বিদ্বদ্বল্লভ পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলার কাঁকিলা গ্রামের এক গৃহস্থ বাড়ির গোয়ালঘর থেকে পুঁথি আকারে অযত্নে রক্ষিত এ কাব্য আবিষ্কার করেন। ১৯১৬ সালে বসন্তরঞ্জন রায়ের সম্পাদনায় গ্রন্থটি বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষদ থেকে প্রকাশিত হয়। পুরো কাব্যটি আবর্তিত হয়েছে রাধা কৃষ্ণের প্রেমনিবেদন, দেহসম্ভোগ, দুঃখভোগ ইত্যাদির মধ্য দিয়ে। আর বড়াই চরিত্রটিকে কবি সৃষ্টি করেছেন রাধা-কৃষ্ণের প্রেমের সংবাদ আদান-প্রদানকারিণী হিসেবে।

৫. লোকসাহিত্য কাকে বলে?

(ক) গ্রামীণ নরনারীর প্রণয় সংবলিত উপাখ্যানকে

(খ) লোক সাধারণের কল্যাণে দেবতার স্তুতিমূলক রচনাকে

(গ)লোকের মুখে মুখে প্রচলিত কাহিনী, গান, ছড়া ইত্যাদিকে

(ঘ) গ্রামীণ অশিক্ষিত ও অখ্যাত লোকের সৃষ্ট রচনাকে

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ সাহিত্য হলো একের সাথে অন্যের মিলনের মাধ্যম। লোকসাহিত্য হলো জনসাধারণের মুখে মুখে প্রচলিত  গাঁথা, কাহিনী, গান, ছড়া, প্রবাদ ইত্যাদি।

৬.বাংলা সাহিত্যে কখন গদ্যের সূচনা হয়?

(ক) নবম শতকে         (খ) ত্রয়োদশ শতকে      (গ) ষোড়শ শতকে       (ঘ) উনিশ শতকে

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ গবেষকদের মতে, ঘোল থেকে আঠারো শতক অবধি বাংলা গদ্যের নিদর্শন প্রধানত চিঠিপত্রে ও দলিল-দস্তাবেজে আবদ্ধ ছিল। কিন্তু বাংলা সাহিত্যে গাদ্যের সূচনা হয় উনিশ শতকে।

৭. বাংলা ভাষার প্রথম সাময়িকপত্র কোনটি?

(ক) দিকনিদর্শন          (খ)সংবাদ প্রভাকর        (গ) তত্ত্ববোধিনী           (ঘ) বঙ্গদর্শন

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ বাংলা ভাষার প্রথম সাময়িকপত্র ‘দিকনিদর্শন’; প্রকাশকাল ১৮১৮। সম্পাদক জন ক্লার্ক মার্শম্যান। বাংলা সংবাদপত্রের ইতিহাসে ১৮১৮ খ্রিষ্টাব্দে যে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ (দিকনিদর্শন, সমাচার দর্পন, বেঙ্গল গেজেট) পত্রিকা প্রকাশিত হয় হুগলি জেলার শ্রীরামপুরের খ্রিষ্টান মিশনারিদের তত্ত্বাবধানে, তার মধ্যে ‘দিকনিদর্শন’ অন্যতম।

৮. ইয়ং বেঙ্গল কি?

(ক) বাংলাভাষা শিক্ষার্থী ইংরেজ            (খ) ইংরেজি ভাবধারাপুষ্ট বাঙালি যুবক

(গ) একটি সাহিত্যিক গোষ্ঠীর নাম           (ঘ) একটি সাময়িক পত্রের নাম

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ ইয়ং বেঙ্গল উনিশ শতকের বাংলার নবজাগরণ বা রেনেসাঁসের বার্তাবাহী পাশ্চাত্য শিক্ষা, সভ্যতা ও সংস্কৃতির আলোকে আলোকিত বাঙালি যুবসমাজ। এই দলের প্রায় সকলেই ছিলেন হিন্দু কলেজের ছাত্র এবং অধ্যাপক ডিরোজিওর শিষ্য।

৯. দীনবন্ধু মিত্রের প্রহসন কোনটি?

(ক) বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রোঁ     (খ) বিয়ে পাগলা বুড়ো

(গ) কিঞ্চিত জলযোগ               (ঘ) কল্কি অবতার

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ বাংলা সাহিত্যে অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক মাইকেল মধুসূদন দত্তের দুটি প্রহসন হলো ‘বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রোঁ’ (১৮৬০), ‘একেই কি বলে সভ্যতা’ (১৮৬০) । ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্তের অনুপ্রেরণায় কবিতা দিয়ে সাহিত্যজীবন শুরু করা দীনবন্ধু মিত্র প্রহসন রচনায় অত্যন্ত দক্ষতার পরিচয় দেন। তার রচিত প্রহসন দুটি হলো ‘সধবার একাদশী’ (১৮৬৬), ‘বিয়ে পাগলা বুড়ো’ (১৮৬৬) । ‘বিয়ে পাগলা বুড়ো’ প্রহসন সমাজের প্রাচীনপন্থিদের ব্যঙ্গ করে রচনা করেন।

১০. মীর মশাররফ হোসেনের নাটক কোনটি?

(ক) নটির পূজা  (খ) বেহুলা গীতাভিনয়    (গ) নবীন তপস্বিনী      (ঘ) কৃষ্ণকুমারী

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ মীর মশাররফ হোসেন রচিত নাটক হলো ‘বসন্তকুমারী’(১৮৭৩). ‘জমিদার দর্পন’ (১৮৭৩), ‘বেহুলা গীতাভিনয়’ (১৮৮৯) । মাইকেল মধুসূদন দত্ত রচিত নাটক ‘পদ্মাবতী’ (১৮৬০), ‘কৃষ্ণকুমারী’ (১৮৬১), ‘শর্মিষ্ঠা’ (১৮৫৮), ‘মায়াকানন’। উল্লেখ্য, ‘কৃষ্ণকুমারী’ বাংলা সাহিত্যে প্রথম সার্থক ট্র্যাজেডি নাটক। ‘নবীন তপস্বিনী’ (১৮৬৬) নাটকের রচয়িতা দীনবন্ধু মিত্র। দীনবন্ধু মিত্রের অন্য নাটকগুলো হলো ‘লীলাবতী’ (১৮৬৭), ‘জামাই বারিক’ (১৮৭২), ‘কমলে কামিনী’ (১৮৭৩) ।

১১. কলকাতায় প্রথম রঙ্গমঞ্চ তৈরি হয় কত সালে?

(ক) ১৮১৭ সালে           (খ) ১৮৩২ সালে                    (গ) ১৮৫২ সালে                   (ঘ) ১৭৫৩ সালে

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ কলকাতায় প্রথম রঙ্গমঞ্চ তথা নাট্যমঞ্চ প্রতিষ্ঠিত হয় ১৭৫৩ সালে। নাটক ও ‍নৃত্যকর্মকে উৎসাহিত করতে ব্রিটিশরা ‘প্লে হাউস’ নামক এ রঙ্গমঞ্চটি প্রতিষ্ঠা করে। কলকাতার লালদিঘীর পূর্ব পাশে লালবাজার রোডে এটি অবস্থিত।

১২. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অতিপ্রাকৃত গল্প কোনটি?

(ক) একরাত্রি     (খ) নষ্টনীড়      (গ) ক্ষুধিত পাষাণ         (ঘ) মধ্যবর্তিনী

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ অতিপ্রাকৃত শব্দের অর্থ অলৌকিক, অনৈসর্গিক, supernatural । রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছোটগল্পগুলোর বিষয়বস্তুর দিকে লক্ষ্য করলে দেখা যায়, তার গল্পে প্রেম, সামাজিক জীবনে সম্পর্ক বৈচিত্র্য, প্রকৃতির সঙ্গে মানবমনের নিগূঢ় অন্তরঙ্গযোগ ও অতিপ্রাকৃতের স্পর্শ। তার অতিপ্রাকৃত গল্পগুলো হলো- ‘গুপ্তধন’, ‘জীবিত ও মৃত’, ‘মণিহারা’, ক্ষুধিত পাষাণ’, ‘নিশীথে’, ‘সম্পত্তি সমর্পণ’ প্রভৃতি। অন্যদিকে ‘একরাত্রি’, ‘নষ্টনীড়’ ও ‘মধ্যবর্তিনী’ তার রচিত প্রেমবিষয়ক গল্প।

১৩. বাংলা সাহিত্যের প্রথম মুসলিম ঔপন্যাসিকের নাম কি?

(ক) মোতাহার হোসেন             (খ) ইসমাইল হোসেন সিরাজী

(গ) মীর মশাররফ হোসেন         (ঘ) ফররুখ আহমদ

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ বাংলা সাহিত্যের প্রথম মুসলিম ঔপন্যাসিক মীর মশাররফ হোসেন ‘রত্নবতী’ উপন্যাসটি রচনা করেন ১৮৬৯ সালে, যা বাংলা সাহিত্যে মুসলিম রচিত প্রথশ উপন্যাস। মীর মশাররফ হোসেনের জন্ম কুষ্টিয়ার লাহিনীপাড়া গ্রামে ১৩ নভেম্বর ১৮৪৭ খ্রিষ্টাব্দে । তিনি ঔপন্যাসিক, নাট্যকার ও প্রাবন্ধিক । তার বিখ্যাত উপন্যাস ‘বিষাদ-সিন্ধু’ (১৮৮৫-১৮৯১)।

১৪. নজরুল ইসলামের সম্পাদিত পত্রিকা কোনটি?

(ক) মাহে নও   (খ) সওগাত     (গ) ধূমকেতু    (ঘ) কালিকলম

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ বাংলা সাহিত্যের বিদ্রোহী কবি বাংলাদেশের জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম সম্পাদিত পত্রিকা ‘দৈনিক নবযুগ’ (১৯২০), ‘ধূমকেতু’ (১৯২২), ‘লাঙ্গল’ (১৯২৫) ।

১৫. জীবনানন্দ দাশের প্রবন্ধগ্রন্থ কোনটি?

(ক) ধূসর পান্ডুলিপি       (খ) কবিতার কথা         (গ) ঝরা পালকের কবি  (ঘ) দুর্দিনের যাত্রী

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ তিমির হননের কবি জীবনানন্দ দাশ(১৮৯৯-১৯৫৪)- এর প্রবন্ধগ্রন্থ ‘কবিতার কথা’ (১৯৫৪) । তার রচিত কাব্যগ্রন্থ : ‘ঝরাপালক’ (১৯২৭), ‘ধূসর পান্ডুলিপি’ (১৯৩৬), ’বনলতা সেন’ (১৯৪২), ‘সাতটি তারার তিমির’ (১৯৪৮), রূপসী বাংলা’ (১৯৫৭)। উপন্যাম: ‘মাল্যবান’ (১৯৭৩), ‘সতীর্থ’ (১৯৭৪) । ‘দুর্দিনের যাত্রী’ (১৯২২) এবং ‘যুগবাণী’ (১৯২৬) কাজী নজরুল ইসলাম রচিত প্রবন্ধ গ্রন্থ ।

১৬. ‘সাত সাগরের মাঝি’ কাব্যগন্থের রচয়িতা কে?

(ক) কাজী নজরুল ইসলাম         (খ) ফররুখ আহমদ       (গ) আব্দুল কাদির       (ঘ) বন্দে আলী মিয়া

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ কাজী নজরুল ইসলাম (১৮৯৯-১৯৭৬) রচিত কয়েকটি কাব্যগ্রন্থ ‘অগ্নিবীণা’ (১৯২২), ‘দোলন চাঁপা’ (১৯২৩), ‘সিন্ধু হিন্দোল’ (১৯২৭), বিষের বাঁশি (১৯২৪), ‘ভাঙ্গার গান’ (১৯২৪), ‘ছায়ানট’ (১৯২৪), ‘প্রলয় শিখা’ (১৯৩০), ‘পূবের হাওয়া’ (১৯২৫), ‘সর্বহারা’ (১৯২৬) । ইসলামী স্বাতন্ত্র্যবাদী কবি ফররুখ আহমদের উল্লেখযোগ্য কাব্যগ্রন্থ ‘সাত সাগরের মাঝি’ (১৯৪৪), ‘মুহূর্তের কবিতা’ (১৯৬৩) । ছান্দসিক কবি আব্দুল কাদিরের কবিতা গ্রন্থ ‘দিলরুবা’ (১৯৩৩), ‘উত্তর বসন্ত’ (১৯৬৭) । পল্লী প্রকৃতির সৌন্দর্য বর্ণনায় নৈপুণ্যের স্বাক্ষরকারী বন্দে আলী মিয়ার রচিত কাব্যগ্রন্থ ‘ময়নামতির চর’ (১৯৩২), ‘অনুরাগ’ (১৯৩২) ।

১৭. বাংলাদেশের ভাষা আন্দোলনভিত্তিক উপন্যাস কোনটি?

(ক) অগ্নিসাক্ষী   (খ) চিলেকোঠার সেপাই  (গ) আরেক ফাল্গুন       (ঘ) অনেক সূর্যের আশা

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ কথাশিল্পী ও চলচ্চিত্র পরিচালক জহির রায়হান (১৯৩৫-১৯৭২) ১৯৫২ সালে রাষ্ট্রভাষা আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করেন। ভাষা আন্দোলনের ওপর তার রচিত ‍উপন্যাস ‘আরেক ফাল্গুন’ (১৯৬৮) এবং আখতারুজ্জামান ইলিয়াসের উপন্যাস ‘চিলেকোঠার সেপাই’ (১৯৮৭) ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থানের প্রেক্ষাপটে রচিত।

১৮. মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস কোনটি?

(ক) শঙ্খনীল কারাগার   (খ) কাঁটাতারে প্রজাপতি  (গ) জাহান্নাম হইতে বিদায়       (ঘ) আর্তনাদ

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমদের উল্লেখযোগ্য উপন্যাস ‘নন্দিত নরকে’, ‘শঙ্খনীল কারাগার’, ‘আগুনের পরশমণি’, ‘জোছনা ও জননীর গল্প’। এর মধ্যে ‘আগুনের পরশমণি’ তার মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস এবং শওকত ওসমানের মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক উপন্যাস ‘জাহান্নাম হইতে বিদায়’ (১৯৭১), ‘নেকড়ে অরণ্য’ (১৯৭৩), ‘দুই সৈনিক’ (১৯৭৩) এবং ‘জলাংগী’ (১৯৮৬) ।

১৯. শওকত ওসমান কোন উপন্যাসের জন্য আদমজী পুরস্কার লাভ করেন?

(ক) বনী আদম           (খ) জননী        (গ) চৌরসন্ধি    (ঘ) ক্রীতদাসের হাসি

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ কথাসাহিত্যিক ‘ক্রীতদাসের হাসি’ (১৯৬২) উপন্যাসের জন্য ১৯৬৬ সালে আদমজী পুরস্কার লাভ করেন। এ উপন্যাসটিতে প্রতীকাশ্রয়ে তৎকালীন পাকিস্তানিদের বিরূপ শাসনের সমালোচনা করা হয়। এ উপন্যাসের ইংরেজি অনুবাদ করা হয় ‘A Slave Laughs’ (১৯৭৬) । ‘বনী আদম’ (১৯৪৬) শওকত ওসমানের প্রথম উপন্যাস। এছাড়া ‘জননী’ (১৯৬১), ‘চৌরসন্ধি’ (১৯৬৮) প্রভৃতি তার প্রখ্যাত উপন্যাস।

২০. ‘উপরোধ’ শব্ধের অর্থ কি?

(ক) প্রতিরোধ    (খ) উপস্থাপন    (গ) অনুরোধ    (ঘ) উপযোগী

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ ‘উপরোধ’ শব্ধের অর্থ: বিশেষ অনুরোধ, সুপারিশ, খাতির। ‘উপরোধে ঢেকি গেলা’ বাগধারাটিতে এ শব্দের ব্যবহার দেখা যায়, যার অর্থ অনুরোধ এড়াতে না পেরে অনিচ্ছা সত্ত্বেও কোনো কাজ করা।

বিষয়: ইংরেজি

২১. Dhaka is becoming one of the …..cities in Asia.

(ক) more busy    (খ) busy     (গ) busiest          (ঘ) most busiest

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ বাক্যটিতে Degree-এর ব্যবহার দেখাতে বলা হয়েছে। এখানে মূল Adjective ‘busy’. এর Superlative form ব্যবহার করতে হবে। ক. নং অপশনে আছে more busy, যা busy-এর superlative form নয়। খ. নং অপশনে আছে busy, যা মূল Adjective। গ.অপশনে আছে busiest, যা busy adjective-এর সঠিক Superlative form. ঘ. অপশনে আছে most busiest, কিন্তু busy-এর natural superlative যেহেতু busiest সেহেতু এখানে most ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। সুতরাং সঠিক উত্তর গ।

২২. He had written the book before he∑

(ক) retired          (খ) had retired  (গ) has retired  (ঘ) will be retired

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ Tense–এর ব্যবহার করে বাক্যটি সম্পূর্ণ করতে হবে। Before conjunction যুক্ত Past Perfect Tense–এর ব্যবহার হলো Before–এর পূর্বের বাক্য Past Perfect Tense হবে এবং Before–এর পরের অংশ Past Indifinite বা Simple Past Tense হবে। অপশনগুলোর ক. নং-এ আছে retired যা retired এর Simple Past Tense ।সুতরাং নিয়ম অনুযায়ী Before-এর পরে Simple Past-এর ব্যবহার আছে। সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

২৩. Rizvi requested Rini……telephone to attend the meeting.

(ক) over    (খ) through        (গ) with     (ঘ) by

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ ওপরের বাক্যটিতে বিজভী রিনিকে টেলিফোনের মাধ্যমে মিটিংয়ে উপস্থিত থাকতে অনুরোধ করছে। কোনো কিছুর ব্যবহার যখন কোনা কিছুর মাধ্যম বা উপায়ে সম্পন্ন হয় তখন ‘over’ preposition ব্যবহৃত হয়। যেমন-রেডিও, টেলিগ্রাফ, টেলিফোন ইত্যাদি। ওপরের বাক্যে রিনিকে বিজভী যেহেতু টেলিফোনের মাধ্যমে বা উপায়ে অনুরোধ করছে সেহেতু সঠিক উত্তর over হবে।

২৪. The word ‘precedence’ means ∑

(ক) example       (খ) priority          (গ) elderly          (ঘ) case

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ Precedence শব্দটি noun। এর অর্থ অগ্রাধিকার বা অগ্রগণ্যতা। যেমন- Orderof presidence. এই অর্থে priority সঠিক উত্তর । কেননা priority শব্দটি দ্বারাও অগ্রগণ্য বা অগ্রাীধিকার mean করে। আবার শব্দটি যদি Precedent হতো তাহলে example সঠিক উত্তর হতো। কারণ Precedent শব্দের অর্থ নজির, পূর্ব নিদর্শন, উদাহরণ, দৃষ্টান্ত ইত্যাদি । Elderly শব্দটি adjective যার অর্থ বয়োজ্যেষ্ঠম পৌঢ়, প্রবীণ ইত্যাদি । ‘case’ noun টির দু ধরনের অর্থ আছে ১. ঘটনা, ব্যাপার ইত্যাদি এবং ২. বাক্স, খাপ, আবরণ ইত্যাদি । সুতরাং সঠিক উত্তর খ।

২৫. The prices of rice are ……

(ক) raising          (খ) risen      (গ) rising  (ঘ) raised

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ Rise অর্থ ঘুম থেকে ওঠাম জেগে ওঠা, বৃদ্ধি পাওয়া। এর Past ও Past Participle Form যথাক্রমে rose, risen. Raise দ্বারা কোনো কিছুকে ওঠানো বোঝায়। এর Past Form Past ও Participle Form হবে raised । ‘Rise’ verb টির Present Participle হবে rising । উপর্যুক্ত বাক্যটিতে rice-এর মূল্য বৃদ্ধি একটি চলমান প্রক্রিয়া অর্থাৎ Continuous Process । অতএব বাক্যটিতে ‘rise’ verb-এর Continuous Tense হবে। অর্থাৎ ing যোগ হয়ে হবে rising। সুতরাং সঠিক উত্তর গ।

২৬. ‘To get along with’ means ∑

(ক) to adjust       (খ) to accompany       (গ) to adjust       (ঘ) to walk

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ Get along with একটি Phasal verb যার অর্থ Good relationship with someone। আবার Deal with বা handle অর্থেও get along with ব্যবহার হয়ে থাকে। যেমস- How are you getting along with the training course। To adjust অর্থ কোনো কিছুর সাথে নিজেকে খাপ খাওয়ানো, good relationship না থাকলে তার সাথে নিজেকে খাপ খাওয়ানো যায় না। To accompany অর্থ কারো সঙ্গী/সহগামী হওয়া। To interest বলতে কোনো কিছুতে আগ্রহ, অনুরাগ, আকর্ষণ, আসক্তি, স্পৃহা ইত্যাদি বোঝায়। To walk অর্থ হাঁটা, চলাফেরা করা ইত্যাদি। সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

২৭. ‘If winter comes, can spring be far behind?’ These lines were written by∑

(ক) Keats   (খ) Frost    (গ) Eliot    (ঘ) Shelley

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ ইংরেজি সাহিত্যে Great Romantic Poet হলেন John Keats (1795-1821) । তাকে বলা হয় ‘Poet of Beauty’। Robert Lee Frost (1874-1963) আমেরিকার একজন বিখ্যাত কবি ও নাট্যকার। Thomas Stearns Eliot (1888-1965) ছিলেন ইংল্যান্ডের বিখ্যাত কবি। তার বিখ্যাত গ্রন্থ ‘The Waste Land’। Percy Busshe Shelley (1792-1822) ছিলেন ইংল্যান্ডের বিখ্যাত কবি। তার বিখ্যাত রচনাগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘Queen Mab: A Philosophical Poem’, ‘The Revolt of Islam’, ‘Prometheus’। তার বিখ্যাত উক্তি  If winter comes, can spring be far behind?নেয়া হয়েছে ‘Ode to The West Wind’ কবিতা থেকে । উল্লেখ্য, লাইনটি কবিতার শেষ লাইন । সুতরাং সঠিক উত্তর ঘ।

২৮. The verb of the word ‘short’ is ∑

(ক) enshort         (খ) shorten          (গ) shorted         (ঘ) shorting

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ Short শব্দটি adjective. এর verb form ‘shorten’ (সংক্ষিপ্ত করা), adverb ‘shortly’ (সংক্ষিপ্ত ভাবে), noun ‘shortness’ (সংক্ষেপ)। Enshort শব্দটি short এর verb form নয় । আবার shorted ও shorting শব্দ দুটোও short-এর  ‘verb’ form নয়। সুতরাং সঠিক উত্তর খ।

২৯. ‘Light’ is to ‘dark’ as ‘cold’ is to∑

(ক) hot        (খ) heat      (গ) cool     (ঘ winter

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ প্রশ্নে উল্লিখিত বাক্যটিতে Light-কে related করা হয়েছে dark এর সাথে। Light ও Dark এর মধ্যে বিপরীতার্থক সম্পর্ক বিরাজমান। Light Adjective হিসেবে ব্যবহার হলে বিপরীতার্থক শব্দ dark। Light অর্থ আলোক বিশিষ্ট, উজ্জ্বল; dark অর্থ আঁধার, অন্ধকার, তিমির ইত্যাদি। এই সাদৃশ্য বিচারে cold-এর বিপরীতার্থক শব্দ hot। কারণ cold ও hot দুটোই adjective। সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

৩০. Many prefer donating money…….distributing clothes.

(ক) than     (খ) but        (গ) to          (ঘ) without

উত্তরঃ

ব্যাখ্যাঃ Prefer to একটি Prepositional verb- এর অর্থ অধিকতর পছন্দ করা, শ্রেয় মনে করা ইত্যাদি । উপর্যুক্ত বাক্যটির অর্থ হলো অনেকে বস্ত্র সামগ্রীর চেয়ে টাকা দান করাকে অধিকতর পছন্দ বা শ্রেয় মনে করে। সুতরাং এক্ষেত্রে ‘Prefer’ verb এর সাথে preposition ‘to’ বসবে। সুতরাং সঠিক উত্তর গ।

৩১. Julia has been ill……..three months.

(ক) since    (খ) about   (গ) in           (ঘ) for

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ Prepositon ‘for’ সাধারণত word বা phrases-এর পূর্বে বসে ‘period of time’ বা নির্দিষ্ট সময় বোঝাতে ব্যবহার হয়ে থাকে। যেমন- For three months। এটি simple present tense ছাড়া অন্য যে কোনো tense-‌এর সাথে ব্যবহার হতে পারে। অন্যদিকে ‘since’ preposition টি ‘point of time’ নির্দেশ করে এমন word বা phrase-এর পূর্বে বসে। যেমন- since Monday। এটি সাধারণত present perfect tense-এর ক্ষেত্রে ব্যবহার হয়। তবে past perfect tense-এর ক্ষেত্রেও ব্যবহৃত হয়। সুতরাং সঠিক উত্তর ঘ।

৩২. We were waiting for the bus.

The underlined part is∑

(ক) a noun phrase                (খ) an infinitive phrase

(গ) a prepositional phrase (ঘ) a verb phrase

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ Noun phrase এমন একটি group of words, যা বাক্যে ব্যবহৃত হয়ে noun-এর কাজ করে। যেমন- We enjoy playing cricket. Indifinite phrase-এ head word হিসেবে থাকে একটি infinitive অর্থাৎ to+verb । যেমন- To read newspaper is good habit। এরূপ phrase noun, modifier বা verb-এর complement হিসেবে ব্যবহৃত হয়। Preposition+ noun pharse মিলে prepositional phrase গঠিত হয়। যেসব prepositional phrase এর প্রথমে এবং শেষে preposition থাকে সেগুলো sentence-এ preposition-এর কাজ করে। যেমন- in case of ।  Prepositional Phrase কেবল গঠনের দিক থেকে prepositional কিন্তু এরা sentence-এ adjective বা adverb এর কাজ করে। verb phrase হলো lexical বা মূল verb এবং auxiliary verb- এর সমন্বয়ে গঠিত phrase যার head word হলো মূল verb । যেমন-  I shall go there. প্রশ্নে উল্লিখিত বাক্যে ‘wait’ verb-এর modifier হিসেবে for the bus বসেছে। অর্থাৎ verb-এর পরে noun বসেছে। সুতরাং for the bus অংশটি noun phrase । সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

৩৩. The word ‘disinterested’ means∑

(ক) lack of interest    (খ) indifferent   (গ) callous           (ঘ) neutral

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ lack of interest দ্বারা বোঝায় কোনো কিছুতে উৎসাহ বোধের অভাব। indifferent শব্দের অর্থ উদাসীনতা, অনীহা, বিতৃষ্ণা, বৈরাগ্য ইত্যাদি। callous শব্দের অর্থ- কঠিন, নির্মম, উদাসীন, অসাড় ইত্যাদি। neutral শব্দের অর্থ কোনো পক্ষকেই সমর্থন করে না এমন, নিরপেক্ষ । disinterested শব্দের অর্থ নিরপেক্ষ। অর্থাৎ neutral-এর সমার্থক। তবে disinterest হলে সঠিক উত্তর হতো lack of interest . সুতরাং সঠিক উত্তর ঘ।

৩৪.  Who did write first English dictionary?

(ক) Boswell         (খ) Ben Jonson   (গ) Samuel Johndon  (ঘ) Milton

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ James Boswell (1740-1795) ছিলেন স্কটল্যান্ডের একজন আইনজীবি ও লেখক। তিনি  Samuel Johnson-এর Biography লেখার কারণে বিখ্যাত। Ben Jonson(1572-1637) ছিলেন ইংলিশ রেনেসাঁর নাট্যকার, কবি ও অভিনেতা। Samuel Johnson (1709-1784) ছিলেন ইংলিশ লেখক। তিনি ১৭৫৫ সালে প্রথম ‘Dictionary of the English Language’ নামে একটি Dictionary প্রকাশ করেন। এটা ছিল তার নয় বছর সাধনার ফল। এজন্য তাকে ‘Father of the English Dictionary’ বলা হয়। John Milton (1608-1674) ছিলেন একজন বিখ্যাত ইংরেজ মহাকাব্য রচয়িতা । তার বিখ্যাত মহাকাব্য হলো ‘Paradise Lost’, ‘Paradise Regained’ ।

৩৫. New programs will be….next week in Bangladesh Television.

(ক) telecast        (খ) published     (গ) telecasted   (ঘ) broadcasted

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ Verb হিসেবে telecast সাধারণত passive sence-এ ব্যবহার হয়ে থাকে। উল্লিখিত বাক্যটিো রয়েছে passive sence-এ। এর অর্থ কোনো কিছু টেলিভিশনে সম্প্রচার করা। published অর্থ কোনো কিছু প্রকাশ করা। যেমন- বই, পত্রিকা ইত্যাদি । telecasted শব্দটির ভূল প্রয়োগ। কারণ telecast-এর passive use-এও telecast ব্যবহার হয়। যেমন- The event will be telecast simultaneously to nearly 150 cities. Broadcasted শব্দটির প্রয়োগ ভূল। মূল শব্দ Broadcast অর্থ সম্প্রচার করা, বিশেষত রেডিও-টেলিভিশনের মাধ্যমে। তবে শব্দটি Live অনুষ্ঠান, বিশেষত রেডিওতে সম্প্রচারের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

৩৬. The word ‘electorate’ means∑

(ক) election office      (খ) a body of voters

(গ) many elections     (ঘ) candidates

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ electorate শব্দাটি noun, যার অর্থ নির্বাচকমন্ডলী।  Election office সাধারণত election সংশ্লিষ্ট কার্যক্রম পরিচালনা করে। a body of voters বলতে বোঝায় নির্বাচকমন্ডলী, যারা voter-দের দ্বারা নির্বাচিত। অনেকগুলো election বোঝাতে many elections ব্যবহৃত হয়। Candidate বলতে প্রার্থী বোঝায়। Candidate শব্দটি নির্বাচনের ক্ষেত্রে, পরিক্ষার ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। তবে সাধারণত candidate দ্বারা নির্বাচনের প্রার্থী বোঝানো হয়। সুতরাং সঠিক উত্তর a body of voters।

৩৭. ‘Animal Farm’ was written by–

(ক) George Orwell     (খ) Stevenson    (গ) Swift   (ঘ) Mark Twain

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ Eric Arthur Blair (1903-1950)-এর pen name ছিল George Orwell. তিনি ভারতের বর্তমান বিহারে জন্মগ্রহন করেন। পরে তিনি ব্রিটিশ নাগরিকত্ব লাভ করেন। তার উল্লেখযোগ্য অবদান হলো ‘Animal Farm’ (1945) ও ‘Nineteen Eighty-Four’ (1949) নামের দুটি উপন্যাস।

৩৮. There is no alternative–training.

(ক) to          (খ) for        (গ) than     (ঘ) of

Appropriate preposition অনুযায়ী alternative noun-টি সব সময় ‘to’ preposition অনুসরণ করে। এর অর্থ বিকল্প। যেমন- There is an alternative answer to the problem. ।

৩৯. Which sentence is correct?

(ক) This is an unique case  (খ) This is a unique case

(গ) This is a very unique case   (ঘ) This is the most unique case

সাধারণত noun-এর প্রথম অক্ষর a, e, i, o, uহলে বা vowel-এর মতো উচ্চারণ হলে তার আগে article ‘an’ বসে। যেমন- He is an MA । কিন্তু noun-এর প্রথম অক্ষর vowel থাকা সত্ত্বেও তার উচ্চারণ যদি ew (ইউ)-এর মতো হয় (যেমন- unique, university) তবে ঐ noun এর আগে a বসে। This is an unique case বাক্যটিতে an-এর ভূল প্রয়োগ হয়েছে। অতএব সঠিক ‍উত্তর ‘This is a unique case’

৪০. I cannot……to pay such high prices.

(ক) able      (খ) but        (গ) try       (ঘ) afford

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ ‘able’ adjective- এর দুই ধরনের অর্থ আছে। ১.কোনো কিছু করতে সমর্থ/সক্ষম ।২. বিচক্ষণ, যোগ্য, দক্ষ, সামর্থ। ‘but’ adv রূপে ব্যবহৃত হলে অর্থ দাঁড়ায় শুধু, কেবল, মাত্র ইত্যাদি। যেমন- You can’t but request. ‘Try’ verb টির অর্থ চেষ্টা করা। ‘Afford’ verb টির অর্থ (সময় বা ব্যয়ের) সামর্থ থাকা। যেমন- We can’t afford such a huxury life high price। অতএব সঠিক ‍উত্তর ‘Afford’

সাধারণ জ্ঞান বাংলাদেশ বিষয়াবলী

৪১. কোন গোষ্ঠী থেকে বাঙালি জাতির  প্রধান অংশ গড়ে উঠেছে?

(ক)  নেগ্রিটো    (খ) ভোটচীন     (গ) দ্রাবিড়      (ঘ) অস্ট্রিক

উত্তরঃ ঘ

ব্যাখ্যাঃ বাঙালি একটি সংকর জাতি। বিভিন্ন জাতির সংমিশ্রণে সময়ের পরিক্রমায় বাঙালি জাতির উদ্ভব হয়। এ দেশে অনার্য, আর্য, মঙ্গল, দ্রাবিড়, পর্তুগিজ, ইংরেজ প্রভৃতি জাতির আগমন ঘটে। এ দেশে প্রথমে অনার্য তথা অস্ট্রিক গোষ্ঠীল প্রভাবধীনে ছিল। অস্ট্রিক গোষ্ঠির আগমনের অন্তত চৌদ্দশ বছর পর বঙ্গদেশে ও পরে দ্রাবিড় জাতির আগমন ঘটে। আর্যগণ সভ্যতা ও সংস্কৃতিতে অনার্য অপেক্ষা উন্নততর হওয়ায় আর্যদের ভাষা ও সংস্কৃতি কালক্রমে বঙ্গদেশে সুপ্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। নৃতাত্ত্বিক বিচারে অনার্য ভাষাভাষী কোল, শবর, পুলিন্দ, হাড়ি, ডোম, চন্ডাল প্রভৃতি বাংলার আদিম অধিবাসী, যারা অস্ট্রিক বা অস্ট্রো-এশিয়াটিক গোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত। আনুমানিক পাঁচ-ছয় হাজার বছর পূর্বে ইন্দোচীন থেকে আসাম হয়ে এ অস্ট্রিক গোষ্ঠীর বঙ্গদেশে আগমন ঘটে। এর চাষাবাদ, লোহা-তামা প্রভৃতির ব্যবহার জানতো । কাজেই বাঙালি জাতির প্রধান অংশ গড়ে উঠেছে অস্ট্রিক বা অনার্য গোষ্ঠী থেকে।

৪২. ঢাকার সর্বপ্রথম কবে বাংলার রাজধানী স্থাপিত হয়?

(ক) ১২০৬ খ্রিস্টাব্দে      (খ) ১৩১০ খ্রিস্টাব্দে      (গ) ১৬১০ খ্রিস্টাব্দে    (ঘ) ১৫২৬খ্রিস্টাব্দে

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ ঢাকার সর্বপ্রথম বাংলার রাজধানী স্থাপিত হয় ১৬১০ খ্রিস্টাব্দে। সুবেদার ইসলাম খান বিহারের রাজমহল থেকে ঢাকায় সর্বপ্রথম রাজধানী স্থানান্তর করেন এবং নামকরণ করেন জাহাঙ্গীরনগন। স্বাধীনতার পূর্বে ঢাকায় সর্বমোট চারবার রাজধানী স্থাপিত হয়- ১৬১০, ১৬৬০, ১৯০৫, ১৯৪৭ খ্রিস্টাব্দে ।

৪৩. ঐতিহাসিক ২১-দফা দাবীর প্রথম দাবিটি কি ছিল?

(ক) বাংলাকে অন্যতম রাষ্ট্রভাষা                     (খ) প্রাদেশিক স্বায়ত্তশাসন

(গ) পূর্ববাংলার অর্থনৈতিক বৈষম্য দূরীকরণ         (ঘ)  বিনা ক্ষতিপূরণে জমিদারী উচ্ছেদ

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ হোসেন শহীধ সোহরাওয়ার্দী, শেরে বাংলা এ কে ফজলুল হক, মাওলানা ভাসানীল নেতৃত্বে ১৯৫৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে যুক্তফ্রন্টের নির্বাচনী ইশতেহার ছিল ঐতিহাসিক ২১-দফা। ঐতিহাসিক ২১-দফার প্রথম দাবিটি ছিল ‘বাংলা ভাষা হবে পাকিস্তানের অন্যতম রাষ্ট্রভাষা’।

৪৪. অপরাজেয় বাংলা কবে উদ্বোধন করা হয়?

(ক) ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৭৯ (খ) ২৬ ডিসেম্বর, ১৯৭৯

(গ) ১ জানুয়ারি, ১৯৮০   (ঘ) ২১ ফেব্রুয়ারি, ১৯৮০

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ ত্রিভুজাকৃতি ভূমির সামান্য কিছু ওপরে বন্দুক কাঁধে  নারী ও পুরুষের সম্মিলিতভাবে ‍মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণের ও বিজয়ের প্রতীক ‘অপরাজেয় বাংলা’ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন চত্বরে অবস্থিত। দেশের সর্বস্তরের মানুষের স্বাধীনতার সংগ্রামে অংশগ্রহণের প্রতিকী চিহ্ন অপরাজেয় বাংলা উদ্বোধন করা হয় ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৭৯ । এর স্থপতি সৈয়দ আব্দুল্লাহ খালেদ।

৪৫. জাতীয় স্মৃতিসৌধের উচ্চতা কত?

(ক) ৪৬.৫ মি    (খ) ৪৬ মি       (গ) ৪৫.৫ মি   (ঘ) ৪৫ মি

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ ঢাকার সাভারের নবীনগরে অবস্থিত জাতীয় স্মৃতিসৌধকে বলা হয় ‘সম্মিলিথ প্রয়াস’। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৬ ডিসেম্বর ১৯৭২ এর ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন এবং ১৬ ডিসেম্বর ১৯৮২ তৎকালীন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ এটি উদ্বোধন করেন। এর স্থপতি সৈয়দ মাইনুল হোসেন। ১০৯ একর জমির ওপর প্রতিষ্ঠিত এ সৌধে ৭ টি ফলক রয়েছে। বাংলাপিডিয়া ৪র্থ খন্ড, পৃষ্ঠা-১২ এর তথ্য মতে জাতীয় স্মৃতিসৌধের উচ্চতা ১৫০ ফুট বা ৪৫.৭২ মিটার। তবে প্রচলিত তথ্য মতে, এর উচ্চতা ৪৬.৫ মিটার।

৪৬. হাজংদের অধিবাস কোথায়?

(ক) ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা    (খ) কক্সবাজার ও রামু

(গ) রংপুর ও দিনাজপুর            (ঘ) সিলেট ও মণিপুর

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ হাজংদের অধিবাস ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা, শেরপুর ও সিলেট অঞ্চলে। হাজংরা পিতৃতান্ত্রিক সমাজের অন্তর্ভুক্ত। ধর্মবিশ্বাসের দিক থেকে হাজংদের মোটামুটিভাবে হিন্দু বলা যায়, যদিও কোনো কোনো দিক থেকে কিছু পার্থক্য লক্ষ্য করা যায়।

২৭. নিঝুম দ্বীপের আয়তন কত?

(ক) ৮০ ব.মা.   (খ) ৮২ ব.মা.   (গ) ৮৫ ব.মা.   (ঘ) ৯০ ব.মা.

উত্তরঃ —–

ব্যাখ্যাঃ নিঝুম দ্বীপ মেঘনা নদীর মোহনায় অবস্থিত। ১৯৬০ সালে নোয়াখালীর মাঝিরা এটি আবিষ্কার করেন। এর পুরনো নাম বাউলার চর। নিঝুম দ্বীপের আয়তন ৫৬,৮৫৮ বর্গ কিলোমিটার।

৪৮. বাংলাদেশের গ্রামের সংখ্যা কত?

(ক) ৮৫৪৫০ টি  (খ) ৮৪৫০০ টি  (গ) ৮৫৫০০ টি (ঘ) ৮৩৯০০ টি

উত্তরঃ —–

ব্যাখ্যাঃ ২০১১ সালের পঞ্চম আদমশুমারি অনুযায়ী বাংলাদেশে গ্রামের সংখ্যা ৮৭, ১৯১ টি। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৮,১৮৩ টি, রাজশাহী বিভাগে ১৪,০৭৫ টি, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৫,২১৯ টি, সিলেট বিভাগে ১০.২৫০ টি, খুলনা বিভাগে ৯, ২৮৭ টি, বরিশাল বিভাগে ৪,০৯৭ টি, রংপুর বিভাগে ৯,০৫০টি এবং ময়মনসিংহে ৭,০৩০ টি (পূর্বের ঢাকা বিভাগ থেকে বিয়োগ করে প্রাপ্ত গ্রাম রয়েছে। উল্লেখ্য, হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং গ্রামটি এশিয়ার বৃহত্তম গ্রাম।

৪৯. বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন কবে হয়?

(ক) ৭ মার্চ ১৯৭৩        (খ) ৫ মার্চ ১৯৭৩         (গ) ৬ এপ্রিল ১৯৭৩     (ঘ) ১১ এপ্রিল ১৯৭৩

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ বাংলাদেশে প্রথম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৭ মার্চ ১৯৭৩। প্রথম সংসদের মেয়াদকাল ছিল ২ বছর ৬ মাস ২৯ দিন। প্রথম জাতীয় সংসদের সংসদ নেতা ছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান ও এম মনসুর আলী। স্পিকার ছিলেন মোহাম্মদ ‍উল্লাহ ও আবদুল মালেক উকিল। এ সংসদে সংবিধানের প্রথম থেকে  চতুর্থ সংশোধনী পাস হয়।

৫০. বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট ইউনিয়ন কোনটি?

(ক) সেন্টমার্টিন            (খ) লালপুর       (গ) হিলি        (ঘ) লালমোহন

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ উপরিউক্ত অপশনগুলোর মধ্যে সেন্টমার্টিন বাংলাদেশের সবচেয়ে ছোট ইউনিয়ন। পঞ্চম আদমশুমারি ২০১১ অনুযায়ী বাংলাদেশের ক্ষুদ্রতম ইউনিয়ন ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার হাজীপুর।

গনিত

৫১. যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের মোট আসন সংখ্যা কতটি?

(ক) ৯৯          (খ) ১০০         (গ) ১০১        (ঘ)১০২

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিকক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্টের নাম ‘কংগ্রেস’। এর উচ্চকক্ষের নাম সিনেট (Senate) এবং নিম্নকক্ষের নাম প্রতিনিধি পরিষদ (House of Representative) । উচ্চকক্ষ সিনেটের সদস্য সংখ্যা ১০০, যারা প্রতিটি অঙ্গরাজ্য থেকে ২ জন করে নির্বাচিত।

৫২. ফেয়ার ফ্যাক্স কি?

(ক) সংবাদ সংস্থা         (খ) পরিবেশ সংস্থা       (গ) গোয়েন্দা সংস্থা       (ঘ)মানবাধিকার সংস্থা

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ ফেয়ার ফ্যাক্স মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি বেসরকারী অর্থনৈতিক গোয়েন্দা সংস্থা। এছাড়া ফেয়ার ফ্যাক্স নামে অস্ট্রেলিয়ায় একটি বহুমূখী মিডিয়া কম্পানি রয়েছে। এ গ্রুপ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে খবরের কাগজ, ম্যাগাজিন, রেডিও, ইন্টারনেট ও ডিজিটালল মিডিয়া পরিচালনা করে থাকে। এর সদর দপ্তর অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে অবস্থিত।

৫৩. NASA–এর সদর দপ্তর কোথায় ?

(ক) ফ্লোরিডা     (খ) হিউস্টন      (গ) কেপ কেনেডি        (ঘ) কেপসাস

উত্তরঃ —–

ব্যাখ্যাঃ www.nasa.gov-এর তথ্য মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা (NASA)-এর সদর দপ্তর ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত। NASA প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৫৮ সালের ২৯ জুলাই। NASA এর পূর্ণরূপ National Aeronautics and Space Administration.

৫৪. দক্ষিণ আফ্রিকা কত বছর শ্বেতাঙ্গ শাসনে ছিল?

(ক) ৩০০ বছর  (খ) ৩৩৫ বছর  (গ) ৩৪২ বছর  (ঘ) ৫০০ বছর

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ আফ্রিকা মহাদেশের সবচেয়ে সম্পদশালী দেশ দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৪২ বছর শ্বেতাঙ্গ শাসনে ছিল। ১৯৯২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ নীতিকে সরকারিভাবে বিলোপ করা হয়। দক্ষিণ আফ্রিকার শেষ শ্বেতাঙ্গ প্রেসিডেন্ট এফ ডব্লিউ ডি ক্লার্ক (F. W. De Klerk)।

৫৫. বসনিয়ায় যুদ্ধবিরতি স্বাক্ষরের মধ্যস্থতাকারী কে?

(ক) বিল ক্লিনটন          (খ) জিমি কার্টার           (গ) নিক্সন        (ঘ) রিগান

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ বসনিয়া-হার্জেগোভিনা প্রাক্তন ফেডারেল যুগোশ্লাভিয়ার একটি প্রজাতন্ত্র। ১৯৯২ সালের ১ মার্চ দেশটি স্বাধীনতা ঘোষণা করে এবং ১৯৯২ সালের ২২ মে জাতিসংঘের সদস্য পদ লাভ করে। কিন্তু স্বাধীনতা ঘোষণার পরপরই দেশটির দেশটির সার্ব ও ক্রোট সম্প্রদায় এর বিরোধীতা করতে থাকে। অবস্থার প্রেক্ষিতে বসনিয়া হার্জেগোভিনায় দেখা দেয় জাতিগত দ্বন্দ এবং যা পরবর্তীতে মারাত্মক গৃহযুদ্ধে রূপ নেয়। এ প্রেক্ষিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রপতি জিমি কার্টারের মধ্যস্থতায় ২৩ ডিসেম্বর ১৯৯৪ বসনিয়ার মুসলিম সরকার ও সার্ববাহিনীর মধ্যে একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

৫৬. ফ্রান্সের বর্তমান প্রেসিডেন্টের নাম কি?

(ক) নিকোলাস সার্কোজি           (খ) জ্যাক শিরাক

(গ) ফ্রঁসিয়ে মিতেরাঁ                           (ঘ) জেনারেল দ্য গল

উত্তরঃ —-

ব্যাখ্যাঃ ফ্রান্সের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। ১৪ মে ২০১৭ তিনি ফ্রান্সের ইতিহাসের ২৫ তম এবং ফ্রেঞ্চ পঞ্চম রিপাবলিকের সপ্তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। নিকোলাস সার্কোজি ছিলেন ফ্রান্সের ২৩ তম প্রেসিডেন্ট। উল্লেখ্য, বর্তমানে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ ৫ বছর (পূর্বে ছিল ৭ বছর) ।

৫৭. হোয়াংহো নদীর উৎপত্তি স্থল কোথায়?

(ক) হিমালয়     (খ) ‍কুয়েনলুন পর্বত      (গ) ব্ল্যাক ফরেস্ট        (ঘ) আলপস

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ হোয়াংহো নদী চীনে অবস্থিত। এর দৈর্ঘ্য ৫,৪৬৪ কিমি; উৎপত্তি ‍কুয়েনলুন পর্বত। এটি পতিত হয়েছে পীত সাগরে। হোয়াংহো নদীর তীরবর্তী শহর বেইজিং। হোয়াংহোকে বলা হয় হলদে হদ বা পীত নদী।

৫৮. মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্র বিভক্তকারী সীমারেখা কোনটি?

(ক) সনোরা লাইন        (খ) ম্যাকনামারা লাইন   (গ) ডুরাল্ড লাইন         (ঘ) হিন্ডারবার্গ লাইন

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ সনোরা লাইন যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোকে বিভক্তকারী সীমারেখা। সনোরা মেক্সিকোর একটি সমুদ্র উপকূলবর্তী রাজ্য। ম্যাকনামারা লাইন যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক উত্তর ও দক্ষিণ ভিয়েতনাম সীমান্তে নির্মিত বৈদ্যতিক বেষ্টনী। ডুরাল্ড লাইন পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যে সীমানা চিহ্নিতকরণ রেখা। হিন্ডারবার্গ লাইন জার্মানি ও পোল্যান্ডের মধ্যে সীমানা চিহ্নিতকরণ রেখা।

৫৯. ইউরোপের ককপিট বলা হয় কোন দেশকে?

(ক) বেলজিয়াম           (খ) ফ্রান্স         (গ) জার্মানী        (ঘ) ফিনল্যান্ড

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ প্রায়স যুদ্ধ সংঘটিত হয়েছে এরূপ স্থানকে ককপিট বলা হয়। বেলজিয়ামকে ইউরোপের ককপিট বা ইউরোপের সমরক্ষেত্র বা রণক্ষেত্র বলা হয়, কারণ এখানে অডেন আর্দে, রামিল্লিস, ফন্টেনোই ফ্লেউরাস, জেম্মাপেস, লিগনি কোয়েটেরে ব্রাস এবং বিখ্যাত ওয়াটার লু যুদ্ধ সংঘটিত হয় এবং ফিনল্যান্ডকে বলা হয় হাজার দ্বীপের দেশ বা হাজার হ্রদের দেশ।

৬০. বিশ্বে কোন দেশের স্বাক্ষরতার হার ১০০%?

(ক) পোল্যান্ড    (খ) লিথুয়ানিয়া  (গ) কাজাকিস্তান         (ঘ) স্লোভাকিয়া

উত্তরঃ —–

ব্যাখ্যাঃ UNDP- প্রকাশিত মানব উন্নয়ন রিপোর্ট ২০১৮ অনুসারে স্বাক্ষরতার হার ১০০%-এর দেশ ইউক্রোন, অ্যান্ডোরা, উজবেকিন্তান ও উত্তর কোরিয়া।

বিষয়: আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি

৫১. যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটের মোট আসন সংখ্যা কতটি?

(ক) ৯৯          (খ) ১০০         (গ) ১০১        (ঘ)১০২

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দ্বিকক্ষ বিশিষ্ট পার্লামেন্টের নাম ‘কংগ্রেস’। এর উচ্চকক্ষের নাম সিনেট (Senate) এবং নিম্নকক্ষের নাম প্রতিনিধি পরিষদ (House of Representative) । উচ্চকক্ষ সিনেটের সদস্য সংখ্যা ১০০, যারা প্রতিটি অঙ্গরাজ্য থেকে ২ জন করে নির্বাচিত।

৫২. ফেয়ার ফ্যাক্স কি?

(ক) সংবাদ সংস্থা         (খ) পরিবেশ সংস্থা       (গ) গোয়েন্দা সংস্থা       (ঘ)মানবাধিকার সংস্থা

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ ফেয়ার ফ্যাক্স মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি বেসরকারী অর্থনৈতিক গোয়েন্দা সংস্থা। এছাড়া ফেয়ার ফ্যাক্স নামে অস্ট্রেলিয়ায় একটি বহুমূখী মিডিয়া কম্পানি রয়েছে। এ গ্রুপ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে খবরের কাগজ, ম্যাগাজিন, রেডিও, ইন্টারনেট ও ডিজিটালল মিডিয়া পরিচালনা করে থাকে। এর সদর দপ্তর অস্ট্রেলিয়ার সিডনিতে অবস্থিত।

৫৩. NASA–এর সদর দপ্তর কোথায় ?

(ক) ফ্লোরিডা     (খ) হিউস্টন      (গ) কেপ কেনেডি        (ঘ) কেপসাস

উত্তরঃ —–

ব্যাখ্যাঃ www.nasa.gov-এর তথ্য মতে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা (NASA)-এর সদর দপ্তর ওয়াশিংটন ডিসিতে অবস্থিত। NASA প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৫৮ সালের ২৯ জুলাই। NASA এর পূর্ণরূপ National Aeronautics and Space Administration.

৫৪. দক্ষিণ আফ্রিকা কত বছর শ্বেতাঙ্গ শাসনে ছিল?

(ক) ৩০০ বছর  (খ) ৩৩৫ বছর  (গ) ৩৪২ বছর  (ঘ) ৫০০ বছর

উত্তরঃ গ

ব্যাখ্যাঃ আফ্রিকা মহাদেশের সবচেয়ে সম্পদশালী দেশ দক্ষিণ আফ্রিকা ৩৪২ বছর শ্বেতাঙ্গ শাসনে ছিল। ১৯৯২ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদ নীতিকে সরকারিভাবে বিলোপ করা হয়। দক্ষিণ আফ্রিকার শেষ শ্বেতাঙ্গ প্রেসিডেন্ট এফ ডব্লিউ ডি ক্লার্ক (F. W. De Klerk)।

৫৫. বসনিয়ায় যুদ্ধবিরতি স্বাক্ষরের মধ্যস্থতাকারী কে?

(ক) বিল ক্লিনটন          (খ) জিমি কার্টার           (গ) নিক্সন        (ঘ) রিগান

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ বসনিয়া-হার্জেগোভিনা প্রাক্তন ফেডারেল যুগোশ্লাভিয়ার একটি প্রজাতন্ত্র। ১৯৯২ সালের ১ মার্চ দেশটি স্বাধীনতা ঘোষণা করে এবং ১৯৯২ সালের ২২ মে জাতিসংঘের সদস্য পদ লাভ করে। কিন্তু স্বাধীনতা ঘোষণার পরপরই দেশটির দেশটির সার্ব ও ক্রোট সম্প্রদায় এর বিরোধীতা করতে থাকে। অবস্থার প্রেক্ষিতে বসনিয়া হার্জেগোভিনায় দেখা দেয় জাতিগত দ্বন্দ এবং যা পরবর্তীতে মারাত্মক গৃহযুদ্ধে রূপ নেয়। এ প্রেক্ষিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রপতি জিমি কার্টারের মধ্যস্থতায় ২৩ ডিসেম্বর ১৯৯৪ বসনিয়ার মুসলিম সরকার ও সার্ববাহিনীর মধ্যে একটি যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

৫৬. ফ্রান্সের বর্তমান প্রেসিডেন্টের নাম কি?

(ক) নিকোলাস সার্কোজি           (খ) জ্যাক শিরাক

(গ) ফ্রঁসিয়ে মিতেরাঁ                           (ঘ) জেনারেল দ্য গল

উত্তরঃ —-

ব্যাখ্যাঃ ফ্রান্সের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ। ১৪ মে ২০১৭ তিনি ফ্রান্সের ইতিহাসের ২৫ তম এবং ফ্রেঞ্চ পঞ্চম রিপাবলিকের সপ্তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। নিকোলাস সার্কোজি ছিলেন ফ্রান্সের ২৩ তম প্রেসিডেন্ট। উল্লেখ্য, বর্তমানে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের মেয়াদ ৫ বছর (পূর্বে ছিল ৭ বছর) ।

৫৭. হোয়াংহো নদীর উৎপত্তি স্থল কোথায়?

(ক) হিমালয়     (খ) ‍কুয়েনলুন পর্বত      (গ) ব্ল্যাক ফরেস্ট        (ঘ) আলপস

উত্তরঃ খ

ব্যাখ্যাঃ হোয়াংহো নদী চীনে অবস্থিত। এর দৈর্ঘ্য ৫,৪৬৪ কিমি; উৎপত্তি ‍কুয়েনলুন পর্বত। এটি পতিত হয়েছে পীত সাগরে। হোয়াংহো নদীর তীরবর্তী শহর বেইজিং। হোয়াংহোকে বলা হয় হলদে হদ বা পীত নদী।

৫৮. মেক্সিকো ও যুক্তরাষ্ট্র বিভক্তকারী সীমারেখা কোনটি?

(ক) সনোরা লাইন        (খ) ম্যাকনামারা লাইন   (গ) ডুরাল্ড লাইন         (ঘ) হিন্ডারবার্গ লাইন

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ সনোরা লাইন যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোকে বিভক্তকারী সীমারেখা। সনোরা মেক্সিকোর একটি সমুদ্র উপকূলবর্তী রাজ্য। ম্যাকনামারা লাইন যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক উত্তর ও দক্ষিণ ভিয়েতনাম সীমান্তে নির্মিত বৈদ্যতিক বেষ্টনী। ডুরাল্ড লাইন পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যে সীমানা চিহ্নিতকরণ রেখা। হিন্ডারবার্গ লাইন জার্মানি ও পোল্যান্ডের মধ্যে সীমানা চিহ্নিতকরণ রেখা।

৫৯. ইউরোপের ককপিট বলা হয় কোন দেশকে?

(ক) বেলজিয়াম           (খ) ফ্রান্স         (গ) জার্মানী        (ঘ) ফিনল্যান্ড

উত্তরঃ ক

ব্যাখ্যাঃ প্রায়স যুদ্ধ সংঘটিত হয়েছে এরূপ স্থানকে ককপিট বলা হয়। বেলজিয়ামকে ইউরোপের ককপিট বা ইউরোপের সমরক্ষেত্র বা রণক্ষেত্র বলা হয়, কারণ এখানে অডেন আর্দে, রামিল্লিস, ফন্টেনোই ফ্লেউরাস, জেম্মাপেস, লিগনি কোয়েটেরে ব্রাস এবং বিখ্যাত ওয়াটার লু যুদ্ধ সংঘটিত হয় এবং ফিনল্যান্ডকে বলা হয় হাজার দ্বীপের দেশ বা হাজার হ্রদের দেশ।

৬০. বিশ্বে কোন দেশের স্বাক্ষরতার হার ১০০%?

(ক) পোল্যান্ড    (খ) লিথুয়ানিয়া  (গ) কাজাকিস্তান         (ঘ) স্লোভাকিয়া

উত্তরঃ —–

ব্যাখ্যাঃ UNDP- প্রকাশিত মানব উন্নয়ন রিপোর্ট ২০১৮ অনুসারে স্বাক্ষরতার হার ১০০%-এর দেশ ইউক্রোন, অ্যান্ডোরা, উজবেকিন্তান ও উত্তর কোরিয়া।

বিষয়: সাধারণ বিজ্ঞান

৬১. রাসায়নিক অগ্নিনির্বাপক কাজ করে অগ্নিতে

(ক) হাইড্রোজেন সরবরাহ করে           (খ) নাইট্রোজেন সরবরাহ করে

(গ) অক্সিজেন সরবরাহ করে              (ঘ) অক্সিজেন সরবরাহে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে

 

উত্তরঃ () অক্সিজেন সরবরাহে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে

ব্যাখ্যাঃ রাসায়নিক অগ্নিনির্বাপক জ্বলন্ত অগ্নিতে প্রচুর পরিমাণ কার্বন ডাই-অক্সাইড- এর সংমিশ্রণ ঘটিয়ে অক্সিজেন সরবরাহের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টির মাধ্যমে আগুনকে নিয়ন্ত্রণে আনে।

 

৬২. গ্রিন হাউস ইফেক্টর পরিণতিতে বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুতর ক্ষতি কী হবে?

(ক) বৃষ্টিপাত কমে যাবে                    (খ) নিম্নভূমি নিমজ্জিত হবে

(গ) উত্তাপ অনেক বেড়ে যাবে              (ঘ) সাইক্লোনের প্রবণতা বাড়বে

 

উত্তরঃ () নিম্নভূমি নিমজ্জিত হবে

ব্যাখ্যাঃ গ্রিন হাউস ইফেক্টের পরিণতিতে প্রথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধির প্রভাবে মেরু অঞ্চলের বরফ গলে যাবে এবং সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা বৃদ্ধি পেয়ে বাংলাদেশের সমুদ্র উপকূলবর্তী অঞ্চলের অধিকাংশ নিমজ্জিত হবে।

 

৬৩. সংকর ধাতু পিতলের উপাদান

(ক) তামা ও টিন                (খ) তামা ও দস্তা

(গ) তামা ও নিকেল            (ঘ) তামা ও সিসা

 

উত্তরঃ () তামা ও দস্তা

ব্যাখ্যাঃ তামা ও টিন মেশালে ব্রোঞ্জ হয় এবং তামার সাথে দস্তা মেশালে পিতল হয়।

 

৬৪. বৈদ্যুতিক পাখা ধীরে ধীরে ঘুরলে বিদ্যুৎ খরচ

(ক) কম হয়         (খ) খুব কম হয়                 (গ) একই হয়       (ঘ) বেশি হয়

 

উত্তরঃ () একই হয়

ব্যাখ্যাঃ রেগুলেটরের মাধ্যমে বৈদ্যুতিক পাখায় বিদ্যুৎ সরবরাহ নিয়ন্ত্রণ করা হয়। যার ফলে বৈদ্যুতিক পাখা ধীরে ঘুরলেও বিদ্যুৎ খরচ একই হয়, কারণ সবসময় বিদ্যুৎ প্রবাহ একই থাকে।

 

৬৫. রঙিন টেলিভিশন থেকে ক্ষতিকর রশ্মি বের হয়

(ক) গামা রশ্মি                   (খ) বিটা রশ্মি

(গ) কসমিক রশ্মি              (ঘ) রঞ্জন রশ্মি

 

উত্তরঃ () গামা রশ্মি

ব্যাখ্যাঃ দ্রুতগামী ইলেকট্রন ধাতুতে আঘাত করলে রঞ্জন রশ্মি উৎপন্ন হয়। কসমিক রশ্মি মহাশূন্য হতে আসে।  বিটা রশ্মি ও গাম রশ্মি তেজস্ক্রিয় বিকিরণে পাওয়া যায়। ক্যাথোড রে টিউব থাকার কারণে রঙিন টেলিভিশন থেকে রঞ্জন রশ্মি নির্গত হয়। আধুনিক LED ও LCD রঙিন টেলিভিশন থেকে রঞ্জন রশ্মি (X-ray) বের হয় না।

 

৬৬. ডায়াবেটিস রোগ সম্পর্কে যে তথ্যটি সত্য নয় তা হলো

(ক) এ রোগ মানবদেহের কিডনী নষ্ট করে।                      (খ) চিনি জাতীয় খাবার বেশি খেলে এ রোগ হয়।

(গ) এ রোগ হলে রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বৃদ্ধি পায়।             (ঘ) ইনসুলিনের অভাবে এ রোগ হয়।

 

উত্তরঃ () চিনি জাতীয় খাবার বেশি খেলে এ রোগ হয়।

ব্যাখ্যাঃ অগ্ন্যাশয় থেকে নিঃসৃত ইনসুলিন হরমোনের অভাবে রক্তে গ্লুকোজের পরিমাণ বেড়ে গিয়ে ডায়াবেটিস রোগ দেখা দেয়।

 

৬৭. এনজিওপ্লাস্টি হচ্ছে

(ক) হৃৎপিন্ডের বন্ধ শিরা বেলুনের সাহায্যে ফুলানো            (খ) হৃৎপিন্ডে নতুন শিরা সংযোজন

(গ) হৃৎপিন্ডে মৃত টিস্যু কেটে ফেলা                              (ঘ) হৃৎপিন্ডের টিস্যুতে নতুন টিস্যু সংযোজন

 

উত্তরঃ () হৃৎপিন্ডের বন্ধ শিরা বেলুনের সাহায্যে ফুলানো

ব্যাখ্যাঃ ধমনী বা শিরায় রক্ত চলাচল বাধাপ্রাপ্ত হলে বিশেষ ধরনের যন্ত্রের মাধ্যমে সমস্যাযুক্ত ধমনী বা শিরার সংকুচিত স্থান বিশেষ ধরনের বেলুন দ্বারা প্রসারিত করা হয়, যাকে এনজিওপ্লাস্টি বলে।

 

৬৮. অ্যালুমিনিয়াম সালফেটকে চলতি বাংলায় কী বলে?

(ক) ফিটকিরি       (খ) চুন                (গ) সেভিং সোপ                (ঘ) কস্টিক সোডা

 

উত্তরঃ () ফিটকিরি

ব্যাখ্যাঃ পটাশিয়াম অ্যালুমিনিয়াম সালফেটের কেলাসকে পটাশ এলাম বলা হয়। বাংলা ভাষায় এর নাম ফিটকিরি এবং এর রাসায়নিক সংকেত Al2(SO4)3.K2SO4.24H2O।

 

৬৯. ডেঙ্গু জ্বরের বাহক কোন মশা?

(ক) কিউলেক্স                   (খ) এডিস

(গ) অ্যানোফিলিস              (ঘ) সব ধরনের মশা

 

উত্তরঃ () এডিস

ব্যাখ্যাঃ অ্যানোফিলিস মশা ম্যালেরিয়া, কিউলেক্স মশা ফাইলেরিয়া এবং এডিস মশা ডেঙ্গু জ্বরের জীবাণু বহন করে।

 

৭০. সুনামির (Tsunami) কারন হলো

(ক) আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত               (খ) ঘূর্ণিঝড়

(গ) চন্দ্র ও সূর্যের আকর্ষণ                  (ঘ) সমুদ্র তলদেশের ভূমিকম্প

 

উত্তরঃ () সমুদ্র তলদেশের ভূমিকম্প

ব্যাখ্যাঃ সমুদ্রের তলদেশে প্রবল ভূমিকম্প সংঘটিত হলে সমুদ্রপৃষ্ঠে প্রচন্ড ও ধ্বংসাত্মক বিশাল ঢেউয়ের সৃষ্টি হয়। এরূপ বিশাল সামুদ্রিক ঢেউগুলোকে সুনামি বলা হয়।

 

৭১. কত বছর পর পর হ্যালির ধুমকেতু দেখা যায়?

(ক) ৭০ বছর                     (খ) ৬৫ বছর

(গ) ৭৬ বছর                    (ঘ) ৮০বছর

 

উত্তরঃ () ৭৬ বছর

ব্যাখ্যাঃ হ্যালির ধুমকেতু ৭৬ বছর পর পর দেখা যায়। ১৭৫৯, ১৮৩৫, ১৯১০ ও ১৯৮৬ সালে হ্যালির ধূমকেতু দেখা গেছে। পরবর্তীতে আবার ২০৬২ সালে দেখা যাবে।

 

৭২. জমির লবণাক্ততা নিয়ন্ত্রণে করে কোনটি?

(ক) কৃত্রিম সার প্রয়োগ                     (খ) পানি সেচ

(গ) জমিতে নাইট্রোজেন ধরে রাখা        (ঘ) প্রাকৃতিক সার প্রয়োগ

 

উত্তরঃ () পানি সেচ

ব্যাখ্যাঃ কৃত্রিম সার প্রয়োগ জমির লবণাক্ততা কিছুটা বৃদ্ধি করে। জমির লনণাক্ততা নিয়ন্ত্রণে প্রাকৃতিক সারের কোনো প্রত্যক্ষ ভুমিকা নেই। জমিতে নাইট্রোজেন ধরে রাখার সাথেও জমির লবণাক্ততা নিয়ন্ত্রণের কোনো সম্পর্ক নেই।

 

৭৩. কিসের অভাবে ফসলের পরিপক্বতা বিলম্বিত হয়?

(ক) দস্তা              (খ) সালফার                     (গ) নাইট্রোজেন                  (ঘ) পটাশিয়াম

 

উত্তরঃ () সালফার

ব্যাখ্যাঃ দস্তার অভাবে পাতার বৃদ্ধি ব্যাহত হয়। সালফারের অভাবে গাছ খর্বাকৃতির হয় এবং ফসলের পরিপক্বতা বিলম্বিত হয়। নাইট্রোজেনের অভাবে ক্লোরোফিল সৃষ্টিতে বিঘ্নতা ঘটে এবং অভাব বেশি হলে গাছের পাতা হলুদ হয়ে যায়। পটাশিয়ামের অভাব হলে সালোকসংশ্লেষণের হার হ্রাস পায় এবং পাতার শীর্ষ ও কিনার হলুদ হয়।

 

৭৪. নবায়নযোগ্য জ্বালানি কোনটি?

(ক) পরমাণু শক্তি               (খ) কয়লা            (গ) পেট্রোল           (ঘ) প্রাকৃতিক গ্যাস

 

উত্তরঃ () পরমাণু শক্তি

ব্যাখ্যাঃ যেসব জ্বালানির মজুদ ভবিষ্যতে কখনো শেষ হবে না তাদেরকে নবায়নযোগ্য জ্বালানি বলে। বায়োগ্যাস ও পরমাণুশক্তি হলো নবায়নযোগ্য জ্বালানি উৎসের উদাহরণ।

 

৭৫. বিশ্ব পরিবেশ দিবস কোনটি?

(ক) ৫ মে             (খ) ১৫ মে           (গ) ৫ জুন            (ঘ) ১৫ জুন

 

উত্তরঃ () ৫ জুন

ব্যাখ্যাঃ ৫ মে, আন্তর্জাতিক ধাত্রী দিবস, ১৫ মে আন্তর্জাতিক পরিবার দিবস এবং ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবস।

 

৭৬. কম্পিউটার থেকে কম্পিউটারে তথ্য আদানপ্রদানের প্রযুক্তিকে বলা হয়

(ক) ই-মেইল                     (খ) ইন্টানকম                    (গ) ইন্টারনেট                    (ঘ) টেলিগ্রাম

 

উত্তরঃ () ইন্টারনেট

ব্যাখ্যাঃ আধুনিক যোগাযোগ ব্যবস্থা ব্যবহার করে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে থাকা অসংখ্য কম্পিউটার নেটওয়ার্ককে পরস্পর সম্পর্কযুক্ত করে তাদের মধ্যে যে আন্তঃসম্পর্ক বা যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলা হয় তাকে ইন্টারনেট বলে।

 

৭৭. কোন মাধ্যমে শব্দের গতি সর্বাপেক্ষা কম?

(ক) শূন্যতায়         (খ) কঠিন পদার্থে   (গ) তরল পদার্থে                (ঘ) বায়বীয় পদার্থে

 

উত্তরঃ () বায়বীয় পদার্থে

ব্যাখ্যাঃ কঠিন পদার্থে শব্দ সবচেয়ে দ্রুত চলে, তরল মাধ্যমে তার চেয়ে ধীর চলে। বায়বীয় মাধ্যমে শব্দের দ্রুতি (গতি) সবচেয়ে কম আর ভ্যাকিউয়ামে বা শূন্যে শব্দের দ্রুতি (গতি) শূন্য।

 

৭৮.কোন জারক রস পাকস্থলীতে দুগ্ধ জমাট বাঁধায়?

(ক) পেপসিন         (খ) এমাইলেজ       (গ) রেনিন            (ঘ) ট্রিপসিন

 

উত্তরঃ () রেনিন

ব্যাখ্যাঃ পাকস্থলীতে দুগ্ধ জমাট বাঁধতে রেনিন নামক জারক রস প্রয়োজন হয়। অপরপক্ষে ‘ট্রিপসিন’ এবং ‘পেপসিন’ নামক এনজাইম প্রোটিন পরিপাকে এবং ‘এমাইলেজ’ কার্বোহাইড্রেড পরিপাকে সহায়তা করে।

 

৭৯. স্টিফেন হকিং বিশ্বের একজন অতিশয় বিখ্যাত

(ক) দার্শনিক         (খ) পদার্থবিদ        (গ) কবি             (ঘ) রসায়নবিদ

 

উত্তরঃ () পদার্থবিদ

ব্যাখ্যাঃ ব্রিটিশ তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানী ও গণিতজ্ঞ স্টিফেন হকিং ১৯৪২ সালের ৮ জানুয়ারি অক্সফোর্ডে জন্মগ্রহণ করেন। মটর নিউরন ডিজিজে আক্রান্ত এ বিজ্ঞানীর লেখা ‘এ ব্রিফ হিস্ট্রি অফ টাইম’ একটি আলোচিত গ্রন্থ। ১৪ মার্চ ২০১৮ তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

 

৮০. ফল পাকানোর জন্য দায়ী কী?

(ক) ইথিলিন         (খ) প্রপিন                        (গ) লাইকোপেন      (ঘ) মিথিলিন

 

উত্তরঃ () ইথিলিন

ব্যাখ্যাঃ ফল পাকানোর জন্য দায়ী ফারটোহরমোনের নাম ইথিলিন (Ethylene)। লাইকোপেনের কারণে ফলের রং লাল হয়।

বিষয়: গণিত

৮১. কোন লঘিষ্ঠ সংখ্যার সাথে ২ যোগ করলে ১২, ১৮ এবং ২৪ দ্বারা বিভাজ্য হবে?

(ক) ৮৯               (খ) ৭০               (গ) ১৭০              (ঘ) ১৪২

 

উত্তরঃ () ৭০    

ব্যাখ্যাঃ ১২, ১২, ২৪ এর ল.সা.গু = ২×২×৩×৩×২= ৭২

.·. নির্ণেয় লঘিষ্ঠ সংখ্যা = ৭২-২ = ৭০

 

৮২. নিচের কোনটি মৌলিক সংখ্যা?

(ক) ৯১               (খ) ৮৭               (গ) ৬৩               (ঘ) ৫৯

 

উত্তরঃ () ৫৯

ব্যাখ্যাঃ আমরা জানি, যে সংখ্যাকে ১ এবং ঐ সংখ্যা ভিন্ন অন্য কোনো সংখ্যা দ্বারা নিঃশেষ ভাগ করা যায় না, তাকে মৌলিক সংখ্যা বলে। সুতরাং, উপরিউক্ত সংখ্যাগুলোর মধ্যে ৫৯ সংখ্যাটি মৌলিক সংখ্যা।

৮৪. একটি সংখ্যা ৩০১ হতে যত বড় ৩৮১ থেকে তত ছোট। সংখ্যাটি কত?

(ক) ৩৪০ (খ) ৩৪১ (গ) ৩৪২ (ঘ) ৩৪৪

 

উত্তরঃ () ৩৪১

ব্যাখ্যাঃ ধরি, সংখ্যাটি x

প্রশ্নমতে, xμ৩০১ = ৩৮১ μ x

বা, ২x = ৬৮২

.·. x = ৩৪১

 

৮৫. ক ও খ একত্রে একটি কাজ ১২ দিনে করতে পারে। ক একা কাজটি ২০ দিনে করতে পারে। খ একা কাজটি কতদিনে করতে পারবে?

(ক) ২৫               (খ) ৩০               (গ) ৩৫              (ঘ) ৪০

 

৮৬. f(x) = x3+kx2μ6xμ9’ k- এর মান কত হলে f(3) = 0  হবে।

(ক) 1                (খ) μ1              (গ) 2                 (ঘ) 0

 

উত্তরঃ () 0

ব্যাখ্যাঃ দেয়া আছে, f(x) = x3+kx2_6x-9

.·. f(3) = 33+ k.32_6.3-9 = 9k

প্রশ্নমতে, 9k = o            [·.· f(3) = 0]

.·. k = 0

উত্তরঃ () xz < yz

ব্যাখ্যাঃ দেওয়া আছে, z<0 অর্থাৎ z একটি ঋণাত্বক সংখ্যা। আমরা জানি, কোনো অসমতার উভয় পক্ষকে কোনো ঋনাত্মক সংখ্যা দ্বারা গুণ বা ভাগ করলে অসমতা চিহ্ন পাল্টে যায় (অর্থাৎ ‘>’ চিহ্ন পরিবর্তিত হয়ে ‘<’  এবং‘<’ চিহ্ন পরিবর্তিত হয়ে ‘>’ হয়)।

দেয়া আছে, x > y

.·. xz < yz ( উভয়পক্ষকে z দ্বারা গুণ করে)।

 

৮৮. একটি আয়তক্ষেত্রের দৈর্ঘ্য প্রস্থের দ্বিগুণ। আয়তক্ষেত্রটির ক্ষেত্রফল 1250 বর্গমিটার হলে এর দৈর্ঘ্য কত?

(ক) 30 মিটার                 (খ) 40 মিটার                  (গ) 50 মিটার                  (ঘ) 60 মিটার

 

উত্তরঃ () 50 মিটার

ব্যাখ্যাঃ ধরি, আয়তক্ষেত্রটির প্রস্থ = x মিটার

.·. দৈর্ঘ্য = 2x মিটার

.·. আয়তক্ষেত্রটির ক্ষেত্রফল = 2x2 বর্গমিটার

প্রশ্নমতে, 2x2 = 1250

বা, x2=625

.·. x = 25

.·. আয়তক্ষেত্রটির দৈর্ঘ্য = 2× 25 = 50 মিটার ।

 

৮৯. ‍নিম্নের কোনটি বৃত্তের সমীকরণ?

(ক) ax2 + bx +c = 0              (খ) y2 = ax

(গ) x2 + y2 = 16                      (ঘ) y2 = 2x + 7

 

উত্তরঃ () x2 + y2 = 16

ব্যাখ্যাঃ আমরা জানি, কেন্দ্র (p,q) ও ব্যাসার্ধ r হলে বৃত্তের সমীকরণ হলো ( x-p)2 + (y-q)2 = r2 .

P= 0, q=0 এবং r=4 হলে উপরিউক্ত সমীকরণটি দাঁড়ায়,

x2 + y2 = 16

৯২. a+b = 7 এবং হলে নিচের কোনটি ab এর মান হবে?

(ক) 12             (খ) 10             (গ) 6                 (ঘ) কোনটিই নয়

উত্তরঃ () 12

ব্যাখ্যাঃ দেয়া আছে, a2 +b2 = 25

বা, (a+b)2 μ 2ab = 25

বা, 72 μ 2ab = 25  [ ·.· a+b = 7 ]

বা, 2ab = 24

.·. ab = 12

 

৯৩. ‍দুটি সন্নিহিত কোণের সমষ্টি দুই সমকোণ হলে একটিকে অপরটির কি বলে?

(ক) সন্নিহিত কোণ              (খ) সরল কোণ      (গ) পূরককোণ       (ঘ) সম্পূরক কোণ

 

উত্তরঃ () সম্পূরক কোণ

ব্যাখ্যাঃ সম্পূরক কোণের সংজ্ঞা অনুযায়ী, দুটি সন্নিহিত কোণের সমষ্টি দুই সমকোণ হলে কোণ দুটির একটিকে অপরটির সম্পূরক কোণ বলে।

 

৯৪. বৃত্তের কেন্দ্র ছেদকারী জ্যাকে কি বলা হয়?

(ক) ব্যাস             (খ) ব্যাসার্ধ           (গ) বৃত্তচাপ           (ঘ) পরিধি

 

উত্তরঃ () ব্যাস

ব্যাখ্যাঃ বৃত্তের কেন্দ্র ছেদকারী অর্থাৎ বৃত্তের কেন্দ্র দিয়ে গমনকারী জ্যাকে বলা হয় বৃত্তের ব্যাস।

 

৯৫. দুটি ত্রিভুজ পরস্পর সর্বসম হওয়ার জন্য নিচের কোন শর্তটি যথেষ্ট নয়?

(ক) একটি তিন বাহু অপরটির তিন বাহুর সমান

(খ) একটির তিন কোণ অপরটির তিন কোণের সমান

(গ) একটির দুই কোণ ও এক বাহু অপরটির দুই বাহু ও অনুরূপ বাহুর সমান

(ঘ) একটির দুই বাহু ও অন্তর্ভুক্ত কোণ অপরটির দুই বাহু ও অন্তর্ভুক্ত কোণের সমান

 

উত্তরঃ () একটির তিন কোণ অপরটির তিন কোণের সমান

ব্যাখ্যাঃ অপশন (ক), (গ) ও (ঘ)- এর বিদ্যামান শর্তগুলো দুটি ত্রিভুজ পরস্পর সর্বসম হওয়ার জন্য যথেষ্ট। কিন্তু (খ) অপশন (খ)- এ বিদ্যমান শর্তটি দুটি ত্রিভুজ পরস্পর সর্বসম হওয়ার জন্য যথেষ্ট নয়।

 

৯৬. কোন ত্রিভুজের বাহুগুলোর অনুপাত নিচের কোনটি হলে একটি সমকোণী ত্রিভুজ অঙ্কন সম্ভব হবে?

(ক) ৬:৫:৪           (খ) ৩:৪:৫           (গ) ১২:৮:৪          (ঘ) ৬:৪:৩

 

উত্তরঃ (::

ব্যাখ্যাঃ অক্ষ করি, (ক) ৪+৫ ≈ ৬;

(খ) ৩+ ৪ = ৫

(গ) ৪ + ৮ ≈ ১২ এবং

(ঘ) ৩ + ৪ ≈ ৬

৯৯. ৩, ৯ ও ৪ এর চতুর্থ সমানুপাতিক কত?

(ক) ৪                 (খ) ১৪                (গ) ১৬                (ঘ) ১২

 

উত্তরঃ () ১২

ব্যাখ্যাঃ ধরি, চতুর্থ সমানুপাতিক = x

প্রশ্নমতে, ৩:৯ = ৪ : x

বা,  =

.·. x = ১২

 

১০০. 3x3 + 2x2-21x-20 রাশিটির একটি উৎপাদক হচ্ছে ∑

(ক) x+2           (খ) x-2             (গ) x+1            (ঘ) x-1

 

উত্তরঃ () x+1

ব্যাখ্যাঃ  ধরি, f(x) = 3x3 + 2x2-21x-20

.·. f(-1) = 3(-1)3 + 2(-1)2 -21(-1)-20 = 0

যেহেতু x এর পরিবর্তে μ1 বসালে প্রদত্ত রাশিটির মান শূন্য (0) হয়, সুতরাং x- (-1) বা x+1 প্রদত্ত রাশিটির একটি উৎপাদক।

No comments found.