Engineer's Solutions

The Site is Engineering and Science Related

১৮ তম বিসিএস প্রিলিমিনারি টেস্ট

বাংলা

১। বাংলা বর্ণমালায় মাত্রাবিহীন বর্ণের সংখ্যা কয়টি?

(ক) এগারটি    (খ) নয়টি           (গ) দশটি             (ঘ) আটটি

ব্যাখ্যা: বাংলা বর্ণমালায় মোট বর্ণ ৫০ টি । এর মধ্যে স্বরবর্ণ ১১টি, ব্যঞ্জনবর্ণ ৩৯ টি । ৫০ টি বর্ণের মধ্যে মাত্রাহীন বর্ণ ১০ টি, অর্ধমাত্রার বর্ণ ৮টি, পূর্ণমাত্রার বর্ণ ৩২ টি। , মাত্রাবিহীন ১০টি বর্ণের মধ্যে ৪টি স্বরবর্ণ (এ,ঐ,ও , ঔ) এবং ৬টি ব্যঞ্জনবর্ণ (ঙ, ঞ, ৎ, ঃ,ঁ) । উত্তর: গ

২। ‘তার বয়স বেড়েছে কিন্তু বুদ্ধি বাড়েনি’- এটা কোন ধরনের বাক্য?

(ক) যৌগিক বাক্য                          (খ) সাধারণ বাক্য

(গ)  মিশ্র বাক্য                              (ঘ) সরল বাক্য

ব্যাখ্যা: পরস্পর নিরপেক্ষ দুই বা ততোধিক সরল বা মিশ্র বাক্য মিলিত হয়ে একটি সম্পূর্ণ বাক্য গঠন করলে তাকে যৌগিক বাক্য বলে। প্রশ্নে প্রদত্ত বাক্যটি যৌগিক। কারণ, এখানে দুটি নিরপেক্ষ বাক্য রয়েছে। ১. তার বয়স বেড়েছে, ২. তার বুদ্ধি বাড়েনি- বাক্য দুটি অব্যয় দ্বারা যুক্ত। উত্তর: খ

৩। ‘একাদশে বৃহস্পতি’ এর অর্থ কি?

(ক) আশার কথা                     (খ) সৌভাগ্যের বিষয়

(গ) মজা পাওয়া                     (ঘ) আনন্দের বিষয়

উত্তর: খ

৪। লিঙ্গান্তর হয় না এমন শব্দ কোনটি?

(ক) সাহেব                                    (খ) বেয়াই

(গ) সঙ্গী                                      (ঘ) কবিরাজ

ব্যাখ্যা: লিঙ্গান্তর হয় না এমন পুরুষবাচক শব্দ: কাজী, কুস্তিগীর, পুরোহিত, জামাতা, কবিরাজ, ঢাকী, কৃতদার, অকৃতদার, মৃতদার। অন্য শব্দগুলোর লিঙ্গান্তর হলো: সাহেব-, বেয়াই- বেয়াইন, সঙ্গী- সঙ্গিনী। উত্তর: ঘ

৫। সাধু ভাষা সাধারণত কোথায় অনুপযোগী?

(ক) কবিতার পংক্তিতে                  (খ) গানের কলিতে

(গ) গল্পের কলিতে                        (ঘ) নাটকের সংলাপে

ব্যাখ্যা: সাধুনীতির বৈশিষ্ট্য হলো: ১. এ ভাষারীতি সুনির্ধারিত ব্যাকরণ নিয়ম অনুসারে চলে এবং এর পদবিন্যাস সুনিয়ন্তিত ও সুনির্দিষ্ট। ২. এ ভাষারীতি গুরুগম্ভীর ও তৎসম শব্দবহুল। ৩. এ রীতি নাটক, সংলাপ ও বক্তৃতায় অনুপযোগী । ৪. এ রীতিতে সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ বিশেষ গঠন পদ্ধতি মেনে চলে। উত্তর: ঘ

৬। দুটি পুরুষবাচক শব্দ রয়েছে কোনটির?

(ক)ননদ       (খ) প্রিয়া        (গ) শিষ্যা            (ঘ) আয়া

ব্যাখ্যা: ননদের দুটি পুরুষবাচক শব্দ আছে। ননদ-দেবর/ননদাই। প্রিয়-প্রিয়া, শিষ্য- শিষ্যা, খানসামা- আয়া। উত্তর: ক

৭। বিভক্তিহীন নাম শব্দকে কি বলে?

(ক) নামপদ                             (খ) উপপদ

(গ) প্রাতিপদিক                        (ঘ) উপমিত

ব্যাখ্যা: প্রাতিপদিক হলো বিভক্তিহীন নামশব্দ। নামপদ হলো যে পদ দ্বারা নাম বুঝায়; উপপদ হলো যে পদের পরবর্তী ক্রিয়ামূলের সঙ্গে কৃৎ প্রত্যয় যুক্ত হয়; উপমিত পদ হচ্ছে সাধারণ গুণের উল্লেখবিহীন উপমেয় পদের সাথে উপমান পদের মিলন। উত্তর: গ

৮। কোন বাক্যটি দ্বারা অনুরোধ বুঝায়?

(ক) তুই বাড়ি যা                         (খ) ক্ষমা করা মোর অপরাধ

(গ) কাল একবার এসো                  (ঘ) দূর হও

ব্যাখ্যা: আদেশ অর্থে: তুই বাড়ি যা। প্রার্থনা অর্থে: ক্ষমা কর মোর অপরাধ। অনুরোধ অর্থে : কাল একবার এসো। র্ভৎসনা অর্থে : দূর হও উত্তর: গ।

৯। ধাতুর পর কোন প্রত্যয় যুক্ত করে ভাববাচক বিশেষ্য বুঝায়?

(ক) আন        (খ) আই               (গ) আল           (ঘ) আও

ব্যাখ্যা: যে বিশেষ্য পদে কোনো ক্রিয়ার ভাব বা কাজের ভাব প্রকাশিত হয় তাকে ভাববাচক বিশেষ্য বলে। সাধারণত ধাতু বা প্রাতিপদিকের পর আই ও আও প্রত্যয় যুক্ত হয়ে ভাববাচক বিশেষ্য গঠিত হয়। যেমন: চড়+ আই=চড়াই; পাকড়+আও= পাকড়াও। উত্তর: ঘ,খ

১০। বচন অর্থ কি?

(ক) সংখ্যার ধারণা                           (খ) গণনার ধারণা

(গ) ক্রমের ধারণা                              (ঘ) পরিমাপের ধারণা

ব্যাখ্যা: ‘বচন’ ব্যাকরণের একটি পারিভাষিক শব্দ। এর অর্থ সংখ্যার ধারণা। ব্যাকরণে বিশেষ্য বা সর্বনামের সংখ্যাগত ধারণা প্রকাশের উপায়কে বচন বলে।উত্তর: ক

১১। ‘মরি মরি ! কী সুন্দর প্রভাতের রুপ’- বাক্যে ‘মরি মরি’ কোন শ্রেণির অব্যয়?

(ক) সমন্বয়ী        (খ) অনন্বয়ী          (গ) পদান্বয়ী       (ঘ) অনুকার

ব্যাখ্যা: যেসব বাক্য অন্য পদের সাথে কোনো সম্বন্ধ না রেখে স্বাধীনভাবে নানাবিধ ভাব প্রকাশে ব্যবহৃত হয় তাকে অনন্বয়ী অব্যয় বলে। উচ্ছ্বাস প্রকাশে: মরি মরি! কী সুন্দর  প্রভাতের রুপ। যেসব অব্যক্ত রব, শব্দ বা ধবনির অনুকরণে গঠিত হয়, সেগুলোকে অনুকার অব্যয় বলে। যেমন: নূপুরের আওয়াজ-রুম ঝুম, বাতাসের গতি – শন শন।

উত্তর: খ

১২। ‘দোয়না’ শব্দের সঠিক প্রকৃতি – প্রত্যয় কোনটি?

(ক) দুল্+না                               (খ) দোল্+না

(গ) দোল্+অনা                           (ঘ) দোলনা+আ

ব্যাখ্যা: ধাতুর পর অনা/না প্রত্যয়যোগে ক্রিয়াবাচক ও বস্তুবাচক বিশেষ্য শব্দ গঠিত হয়। যেমন: – কাঁদ+না/অনা=কান্না,ধর+না/অনা= ধরনা।

১৩। ‘কৌশলে কাযোর্দ্ধার’- কোনটির অর্থ?

(ক) গাছে তুলে মই কাড়া                   (খ) এক ক্ষুরে মাথা মোড়ানো

(গ) ধরি মাছ না ছুঁই পানি                (ঘ) আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়া

ব্যাখ্যা: গাছে তুলে মই কাড়া: সাহায্যের আশা দিয়ে সাহায্য না করা। এক ক্ষুরে মাথা মোড়ানো (কামানো) : একই স্বভাবের। ধরি মাছ না ছুঁই পানি: কৌশলে কাযোর্দ্ধার। আকাশের চাঁদ হাতে পাওয়া: দুর্লভ বস্তু হাতে পাওয়া। উত্তর: গ

১৪। ‘সন্ধি’ ব্যাকরণের কোন অংশের আলোচ্য বিষয়?

(ক) রুপতত্ত্ব                                (খ) ধবনিতত্ত্ব

(গ) পদক্রম                                 (ঘ) বাক্য প্রকরণ

ব্যাখ্যা: ধবনিতত্ত্বের আলোচ্য বিষয়: সন্ধি, ণ-ত্ব বিধান, ষ-ত্ব বিধান, ধবনির উচ্চারণস্থান, উচ্চারণপ্রণালী ইত্যাদি। শব্দতত্ত্ব/রুপতত্ত্বের আলোচ্য বিষয়: শব্দ, প্রত্যয়, পুরুষ,উপসর্গ, কারক ও বিভক্তি,বচন, সমাস, লিঙ্গ ইত্যাদি। বাক্যতত্বের আলোচ্য বিষয়: পদবিন্যাস, বাক্যরীতি, বাক্য বিন্যাস, বাচ্য পরিবর্তন, বাগধারা, বাক্য সংকোচন, বিরাম চিহ্ন ইত্যাদি। উত্তর: খ

১৫। কোনটি অপ্রাণীবাচক শব্দের বহুবচনে ব্যবহৃত হয়?

(ক) বৃন্দ         (খ) কুল              (গ) বর্গ               (ঘ) গ্রাম

ব্যাখ্যা: গণ, বৃন্দ, মণ্ডলী, বর্গ উন্নত প্রাণিবাচক (মনুষ্য) শব্দের বহুবচনে ব্যবহৃত হয়। যেমন: সুধীবৃন্দ, মন্ত্রিবর্গ। কুল,সকল, সব, সমূহ প্রাণিবাচক ও অপ্রাণিবাচক শব্দের বহুবচনে ব্যবহৃত হয়। যেমন: কবিকুল, পক্ষীকুল। গ্রাম: অপ্রাণিবাচক শব্দের বহুবচনে ব্যবহৃত হয়। যেমন- গুণগ্রাম (গুণাবলি)। উত্তর: ক

১৬। বাক্যের ক্ষুদ্রতম একক কোনটি?

(ক) শব্দ          (খ) বর্ণ            (গ) ধবনি             (ঘ) চিহ্ন

ব্যাখ্যা: একাধিক ধবনির অর্থবোধক মিলনকে শব্দ বলে। এটি হলো বাক্যের ক্ষুদ্রতম একক। মানুয়ের বাকপ্রত্যঙ্গ দ্বারা উচ্চারিত আওয়াজকে ধবনি বলে। ধবনি নির্দেশক চিহ্নকে বলা হয় বর্ণ। উত্তর: খ

১৭। সন্ধির প্রধান সুবিধা কি?

(ক) পড়ার সুবিধা                               (খ) লেখার সুবিধা

(গ) উচ্চারণের সুবিধা                            (ঘ) শোনার সুবিধা

 

১৮। কোন বানানটি শুদ্ধ

(ক) সমীচীন                                    (খ) সমিচীন

(গ) সমীচিন                                     (ঘ) সমিচিন

উত্তর: ক

১৯। কোন বইটি কবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত নয়?

(ক) শেষের কবিতা                                   (খ) দোলন-চাঁপা

(গ) সোনার তরী                                       (ঘ) মানসী

ব্যাখ্যা: রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত গ্রন্থ ‘শেষের কবিতা’ উপন্যাস, ‘সোনার তরী’ কাব্যগ্রন্থ, ‘মানসী’ কাব্যগ্রন্থ। ‘দোলন চাঁপা’ কাজী নজরুল ইসলাম রচিত কাব্যগ্রন্থ। উত্তর: খ

২০। কাজী ইমদাদুল হক- এর ‘আবদুল্লাহ’ উপন্যাসের উপজীব্য কি?

(ক) চাষী জীবনের করুণ চিত্র

(খ) কৃষক সমাজের সংগ্রামশীল জীবন

(গ) তৎকালীন মুসলিম মধ্যবিত্ত সমাজের চিত্র

(ঘ) মুসলিম জমিদার শ্রেণীর জীবন কাহিনী

ব্যাখ্যা: কাজী ইমদাদুল হক তার ‘আবদুল্লাহ’ উপন্যাসে তৎকালীন মুসলিম মধ্যবিত্ত সমাজের চিত্র তথা নানা দোষ-ক্রটি অত্যন্ত দক্ষতার সাথে তুলে ধরেছেন। ধর্মীয় গোঁড়ামি আর সামাজিক কুসংস্কার যে মুসলিম সমাজেকে ধবংসের দিকে ঠেলে দিয়েছিল এবং ইংরেজি শিক্ষায় সংস্কারমক্ত মন নিয়ে যে ধবংসকে প্রতিরোধ করা যায় তা এ উপন্যাসে দেখা তা এ উপন্যাসে দেখানো হয়েছে। উল্লেখ্য ‘ আবদুল্লাহ’ উপন্যাসের ৪১টি পরিচ্ছেদের মধ্যে ৩০টি পরিচ্ছেদ তার নিজের রচনা। বাকি এগারোটি পরিচ্ছেদ কাজী আনোয়ারুল কাদির (ইমদাদুল হকের খসড়া অবলম্বনে) রচনা করেন। উত্তর: গ

২১। ১৯৫২ সালের ২১ ফেব্রুয়ারির পটভূমিতে রচিত ‘কবর’ নাটকের রচয়িতা কে?

(ক) কবির চৌধুরী                             (খ) মুনীর চৌধুরী

(গ) সৈয়দ শামসুল হক                         (ঘ) মুনতাসীর মামুন

ব্যাখ্যা: বিখ্যাত নাট্যকার মুনীর চৌধুরী রচিত নাটক ‘কবর’ । ৫২-এর ভাষা আন্দোলনের পটভূমিতে নাটকটি রচিত। তিনি ১৯৫৩ সালের ১৭ জানুয়ারি ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে বসে নাটকটি রচনা করেন। উত্তর: খ

ইংরেজী

২২। ‘সততা সর্বোৎকৃষ্ট পস্থা’ – কোনটির অনুবাদ?

(ক) Honesty is the best virtue

(খ) Honesty is the better way

(গ) Honesty is the good  way

(ঘ) Honesty is the best  policy

উত্তর: ঘ

২৩। Many companies now have employee assistance programs that enable employees, free of charge, to improve their  physical fitness, reduce stress, and learn ways to stop smoking. These prograns incrase worket productivity, reduce a bsenteeism and lessen insurance codts for emploee health care, Therefore, these programs benefit the company as well as the employee.

Which of the following, if true, most significantly strengt

(ক)  physical fitness programs are often the most popular services offered to employees.

(খ) studies have shown that training in stress, management is not effective for many people.

(গ) Regular exercise reduces peograms people’s risk of   heart disease and provides them with increased energy.

(ঘ) Employee assistance programs require companies to hire people to supervise the various programs offered.

উত্তর: ক

২৪। choose the answer that is closest in meaning to the following sentence:

Despite the great difference in size, shape and function, all human cells have the

(ক) All human cells are the same because the 46 chromosomes govern size, shape and function.

(খ) Difference in size, shape and function are not very great because all human cells have same 46 chromosomes.

(গ) The size, shape and function of human cells are the same, but the 46 chromosomes are different.

(ঘ) Although the 46 chromosomes are the same in all human cells. there are difference in the size, shape and function. উত্তর: ঘ

২৫। INFINGE means-

(ক) Transgress                     (খ) Purloin

(গ) Invade                             (ঘ) Intrude

ব্যাখ্যা:  InFringe – বঙ্গ করা, লংঘন করা, অতিক্রম করা। Transgress-  লংঘন করা, ভঙ্গ করা; Purloin- হামলা করা, হানা দেয়া; Invade-হামলা করা, হানা দেওয়া: Intrude- জোর করে প্রবেশ করা। সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

২৬। BROCHURE means-

(ক) Opening                     (খ) pamphlet

(গ) Bureau                         (ঘ) Censor

ব্যাখ্যা: Brochure- (সংক্ষিপ্ত বিবরণ সমৃদ্ধ) পুস্তিকা। Opening-উদ্ধোধন, সুচনা; pamphlet-পুস্তিকা; Bureau-দফতর। Censor-কেটে বাদ দেয়া, পরীক্ষা করা। সুতরাং সঠিক উত্তর খ।

২৭। EQUIVOCAL means-

(ক) Universal (খ) Mistakan (গ) Quaint (ঘ) Clear

ব্যাখ্যা:  EQUIVOCAL দ্ব্র্যর্থবোধক, অস্পষ্ট, সন্ধেহজনক । choice, (ক) Universal-সার্বজনীন ।(খ) Mistakan- ভ্রান্ত, ভ্রমাত্নক ।(গ) Quaint – খেয়ালী। (ঘ) Clear-স্পষ্ট, স্বচ্ছ, সন্দেহ মুক্তি। সুতরাং সঠিক উত্তর: খ।

২৮। ILLUSTVE means-

(ক) Not deceptive           (খ) Not certain

(গ) Not                            (ঘ) Clear

ব্যাখ্যা: ILLUSTVE-অলীক,ইন্দ্রজালিক, মায়াবী। choice, (ক) তে Not deceptive- ভ্রান্তিকর নয়, প্রতারণামূলক নয় । (খ) তে Not certain  -অনিশ্চিত, সন্দেহপূর্ণ, অবিশ্বাসযোগ্য। (গ) তে Not-স্পষ্ট নয় এমন, অস্পষ্ট, অপরিষ্কার । (ঘ) তে Clear-  স্পষ্ট, স্বচ্ছ, সন্দেহ মুক্তি। সুতরাং সঠিক উত্তর : খ

প্রশ্ন ২৯ থেকে ৩১

In the following three questions, a related pair of words is followed by four pairs of words. select the pair that best expresses a relationship similar to that expressed in the original pair:

২৯। CARPENTER: SAW

(ক) Setenographer: typewriter

(খ) Painter: brush

(গ) Lawyer: brief

(ঘ) seamstress: scissors

ব্যাখ্যা:  এখানে (ক) সঠিক নয় কারাণ সাঁটলিপিকার প্রাথমিকভাবে কলম দিয়ে কাজ করে। অর্থাৎ প্রশ্নে প্রদত্ত প্রথম জোড়া শব্দের সম্পর্ককে আরো সূক্ষ্মভাবে চিন্তা করতে হবে । Carpenter, saru দিয়ে কাঠ কাটে । তদ্রপ Seamstress (মহিলা দর্জি ) Scissors দিয়ে কাপড় কাটে । সুতরাং (ঘ)ই সঠিক উত্তর ।

৩০। FIRE: ASHES

(ক)  Accident : delay        (খ) What : waves

(গ) Event : memories       (ঘ) wood : splinters

ব্যাখ্যা : অগ্নিকাণ্ডের ফলে থাকে Ashes (ছাই) । ঘটনা (euent)

ঘটার ফলে থাকে Memories (স্মৃতি) । উত্তর (গ) ।

৩১। STARE : GLANCE

(ক) gulp : sip   (খ) confide : tell (গ) scorn : admire (ঘ) participate : observe

ব্যাখ্যা : Stare ও Glance তাকানোর দুটি ধরন Glup (ঢক ঢক করে গেলো ) ও sip (চুমুক দিয়ে খাওয়া ) পানের দুটি ধরন । উত্তর (ক) ।

৩২। Although a few years ago the fundiamental fack about the milky-way seemed fairly well-now even its mass and radius have come into-

(ক) determned – resolution

(খ) established- question

(গ) ignored – danger

(ঘ) diminished – disrepute

ব্যাখ্যা : এ ধরনের বাক্য solve করতে হলে Conjuncation ও Key words গুলো লক্ষ্য করতে হয় । এখানে Although দ্বারা দুটি clause যুক্ত হয়েছে । অর্থাৎ দুটি বিপরীতার্থক তথ্য এটা দ্বারা যুক্ত হয়েছে । আবার ২য় clause টির শুরুতে even শব্দটি থাকার বোঝা যাচ্ছে – শূন্যস্থান দুটিতে পরস্পর বীপরীতার্থক শব্দ ব্যবহার আবশ্যক ।

choice (ক) তে আছে ,

Determined – নিরূপিত, সঠিকভাবে নির্ণীত ।{ এরা বিপরীতার্থক নয় }

Resolution – দৃঢ়তা, সংকল্পে অটল ।

(খ) তে আছে,

Established – প্রতিষ্ঠিত সত্য, সন্দহাতীত।{এরা পরস্পরের বিপরীতার্থক}

Question – প্রশ্ন, সন্দেহ, আপত্তি ।

(গ) তে আছে ।

lgnored – অবহলিত, তাচ্ছিল্য করা হয় এমন ।{ এরাও বিপরীতার্থক নয়}

Danger – বীপদ, আপদ ।

(ঘ) তে আছে,

Diminished – হ্রাসকৃত, হ্রাসপ্রাপ্ত ।

Disrepute – কুখ্যাতি , দুর্ণাম ।  {এরাও বিপরীতার্থক নয় }

কাজেই সঠিক উত্তর (খ)

৩৩। Because she had reputation for–we were surpraised and pleased when she greeted us so –

(ক) insolence – irately

(খ) insouciance – cordially

(গ) arrogance – disdainfully

(ঘ) queulousness – affably

ব্যাখ্যা : Because  দ্বারা দুটি clause যুক্ত হওয়ায় synonym প্রয়োজন ছিল । কিন্তু sarprised শব্দটি থাকায় ব্যাপারটি উল্টো হবে । অর্থাৎ Antonym ব্যবহার করতে হবে ।

choice, (ক) তে আছে ,

insolence – ধৃষ্টতা, উদ্ধত্য ।

Irately – ক্রদ্ধভাবে, কপিতভাবে ।

(খ) তে আছে,

Insouciance – নিরুদ্বেগ, নিরাসক্তি , নিলিপ্ততা ।

Cordially – আন্তরিকভাবে, সহৃদয়ভাবে ।

(গ) তে আছে,

Arrogance – উদ্ধত্য ।

Disainfully – ঘৃণা ভরে, অবজ্ঞা ভরে, অসম্মানজনকভাবে ।

(ঘ) তে আছে ,

Querulouseness – কালহপ্রিয়তা ।

Affably – আমায়িকভাবে ।

এরা সম্পূর্ণরুপে বিপরীতার্থক না হলেও near antonym কারণ, আমায়িক ব্যবহার অবশ্যই কলহের উল্টা । সুতরাং সঠিক উত্তর (ঘ)

৩৪। A – starement is an – comparison; it does not compara .Thing explicitly but suggest a likeness between them.

(ক) sarcastic – unfair

(খ) metaphorical – implied

(গ) sanguine – inherent

(ঘ) blatant – overt

ব্যাখ্যা : is এর দুপাশে ২টি শূন্যস্থান থাকায় Syninym হওয়া স্বাভাবিক । কারণ Linking uerb (be,uerb) দুটি সমধর্মী ব্যাক্তি/বস্তু idan যুক্ত হয় । কাজেই পরস্পরের Synonym হবে সঠিক উত্তর ।

choice, (ক) তে আছে ,

Sarcastic – শ্লেষাত্মক, শ্লেষপুর্ণ ।

Unfair – অন্যায় , অন্যায্য ।

(খ) তে আছে ,

Metaphorical – রূপক , অলংকারিক ।

Implied – নিহিত , ইঙ্গিতপূর্ণ ।

(গ) তে আছে ,

sanguine – (১) আশাবাদী (২) রাক্তিম ।

inherent – স্বাভাবিক, সহজ , সহজাত ।

(ঘ) তে আছে ,

Blatant – অনায়াসে চোখে পাড় এমন ।

Ouert – প্রত্যক্ষ, প্রকাশ্য  ।

Choice , (ঘ) তে Synoymous শব্দ রয়েছে ।

Explicitly – পরিষ্কারভাবে, পরিপূর্ণভাবে , প্রত্যক্ষভাবে ।

সুতরাং সঠিক উত্তর (ঘ) ।

Choose the word or phrase that fill the blank space to complete the sentence:

৩৫। If a ruby is heated it- temporarily loose its color.

(ক) word         (খ) will         (গ) does                (ঘ) has

ব্যাখ্যা: আমরা জানি, If+ present+Future সুতরাং শূন্যস্থানে will (future) ব্যবহৃত হবে। অতএব সঠিক উত্তর খ।

৩৬। All of the peorle at the AAME conference are-

(ক) Mathematic   teachers

(খ)  Mathematics   teachers

(গ) Mathematics   teacher

(ঘ) Mathematic’s   teacher

Mathematic কিংবা Mathematic’s বলে কোনো শব্দ নেই। কাজেই (খ) ও (ঘ) কে বাদ দেয়া যায়। All শব্দটি plrral হওয়ায় teachers শব্দটি plrral ব্যবহৃত হবে। সুতরাং সঠিক উত্তর খ

৩৭। prices for bicycles can run – Tk. 2,00,00.

(ক) as high as                      (খ)  so high as

(গ) as high to                    (ঘ) as high for

ব্যাখ্যা: as high as- উচ্চতা/মূল্য/দরের ক্ষেত্রে। এখানে যেহেতু বাইসাইকেলের মূল্য সম্পর্কে তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে, কাজেই সঠিক উত্তর: ক।

৩৮। Travellers- their reservations well in advance if they want to fly during the Eid holidays.

(ক) had better to get           (খ)  had better to better

(গ) had better get                (ঘ) had better get

ব্যাখ্যা: had better একটি modal যার পর সরাসরি verd word বা base form of verd ব্যবহার আবশ্যক। তাই সঠিক উত্তর গ।

২৯। A seventeen year old is not-to vote in an election.

(ক) old enough                     (খ)  as old enough

(গ) enough old                    (ঘ) enough old as

ব্যাখ্যা: Enough শব্দটি adjective বা Adverb এর ঠিক পরে বসে; পূর্বে বসে না। তাছাড়া এর পরে verb ব্যবহার করতে হলে to+verb আকারে ব্যবহার করতে হয়। সুতরাং সঠিক উত্তর ক।

৪০। Almost everyone fails- on the first try.

(ক) in passing his driver’s test

(খ)  to his driver’s test

(গ) to have passed his driver’s test

(ঘ) passing his driver’s test

ব্যাখ্যা: fail শব্দটির পরে আরেকটি verb ব্যবহার করতে হলে to+verb আকারে লিখতে হয়। তাছাড়া verb না লিখে Noun ব্যবহার করতে হয়। সুতরাং সঠিক উত্তর গ।

Questions 41 to 44 refers to the following passage:

Throughout history, the search for salt has played an important role in society. Where it was scarec, salt traded ounce for ounce with gold. Rome’s major highway was called the via salaria that is the salt Road. Along the road, Roman soldiers transported salt crystals from the salt flats at Ostia up the Tiber River. In return, they received a salarium or salary,which was literally money paid to soldiers to buy salt. The old saying , worth salt. which mean to be valuable derives from the custom of payment during the Empire.

৪১। What does the passage mainly discuss?

(ক) The old saying, ‘worth their salt’’

(খ)  The Roman Empire

(গ) Salt

(ঘ) Ancient Trade

উত্তর: গ

৪২। According to the passage salt flats were located in-

(ক)   Rome                   (খ)  Tiber

(গ) Ostia                        (ঘ) Salaria

উত্তর: গ

৪৩। Salarium is a Latin word that means-

(ক)   Salt                   (খ)  Salary

(গ) Soldiers                       (ঘ) The salt Road

উত্তর: খ

৪৪। If a man is’worth his salt’he is-

(ক)   a soldier                            (খ)  a thirsty man

(গ) a valuable employee           (ঘ) a highly paid worker উত্তর: ঘ

সাধারণ জ্ঞান বাংলাদেশ বিষয়াবলী

৪৫। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ঢাকার কোন এলাকায় অবস্থিত?

(ক) সেগুনবাগিচা        (খ) ধানমণ্ডি          (গ) মগবাজার       (ঘ) বনানী

[ Note: মুক্তিযুদ্ধ  জাদুঘর প্রতিষ্ঠিত হয় ২২ মার্চ ১৯৯৬ । এটির অবস্থান ছিল ঢাকার সেগুনবাগিচায়। মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরকে নিজস্ব ঠিকনা দেয়ার লক্ষ্যে সরকার ২০০৮ সালে দেশের পশ্চিম আগারগাঁওয়ের শেরে বাংলা নগরে ২.৫ বিঘা জমি মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘর ট্রাস্টি বোর্ডের কাছে হস্তান্তর করে। ১৬ প্রিল ২০১৭ আনুষ্ঠানিকভাবে দ্বারন্মোচন করা হয় আগারগাঁওয়ের অবস্থিত মুক্তিযুদ্ধ জাদুঘরের নিজস্ব ভবনের।

৪৬। মুক্তিযুদ্ধের সময় ঢাকা শহর কোন সেক্টরের অধীনে ছিল?

(ক) তিন নম্বর সেক্টর                        (খ) দুই নম্বর সক্টের

(গ) চার নম্বর সেক্টর                           (ঘ) এক নম্বর সেক্ট

ব্যাখ্যা: ঢাকা ছিল ২ ও ৩নং সেক্টরের অধীনে । তবে ঢাকা শহরকে ২ নং সেক্টরের অধীনে ধরা হয়েছিল। এই ২ নং সেক্টরের কমান্ডার ছিলেন মেজর খালেদ মোশাররফ (এপ্রিন সেপ্টেম্বর) ও  মেজর এটিএম হায়দার (সেপ্টেম্বর – ডিসেম্বর) । ২নং সেক্টরে অন্য যে জেলা ছিল তা হলো – বহত্তর নোয়াখালী ও কুমিল্লা এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও ফরিদপুরের কিছু অংশ । চার নম্বর সেক্টরের অধীন সিলেট (আংশিক), মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ (আংশিক)। এক নম্বর সেক্টরের অধীন ছিল চট্রগ্রাম, বান্দরবান, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি, কক্সবাজারে এবং নোয়াখালী জেলার মুহুরী নদীর পূর্বাংশের সমগ্র এলাকা। উত্তর: খ।

৪৭। মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বের জন্য কয়জনকে সবোর্চ্চ সম্মান ‘বীরশ্রেষ্ঠ’ খেতাব দেয়া হয়?

(ক) ৯জন        (খ) ৭জন         (গ) ৮জন          (ঘ) ১০জন

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অকৃত্রিম অবদান রাখার জন্য সাতজনকে বীরশ্রেষ্ঠ খেতাব দেয়া হয়। এরা হলেন ল্যান্স নায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ, সিপাহি মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল, ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট মতিউর রহমান, ল্যান্স নায়েক নূর মোহাম্মদ, সিপাহি মোহাম্মদ হামিদুল রহমান, ইঞ্জিনরুম আর্টিফিসার মোহাম্মদ রুহুল আমিন এবং ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর। উত্তর: খ

৪৮। তদানীন্তন পূর্ব পাকিস্তানের স্বায়ত্তশাসনের জন্য তখনকার বিরোধী দলগুলোর এক সম্মেলনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছয়-দফা দাবি পেশ করেন। ঐ সম্মেলন কোথায় হয়েছিল?

(ক) ঢাকায়      (খ) নারায়ণগঞ্জে      (গ) লাহোরে        (ঘ) করাচীতে

ব্যাখ্যা: পূর্ব পাকিস্তানের স্বাধিকার প্রশ্নে ১৯৬৬ সালের ৫-৬ ফেব্রুয়ারি লাহোরে বিরোধী রহমান পূর্ব পাকিস্তানের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও প্রতিরক্ষার দাবি সম্বলিত একটি কর্মসূচি ঘোষণা করেন। এটাই ইতিহাসে ‘ছয় দফা কর্মসূচী’ নামে পরিচিত। অবেশেষে লাহোরে অনুষ্ঠিত একটি সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে ৬ দফা কর্মসূচি পেশ করেন। উত্তর: গ

৪৯। বাংলাদেশের সংবিধানের ২১(২) ধারায় বলা হয়েছে “সকল সময়ে- চেষ্টা করা প্রজাতন্ত্রের কর্মে নিযুক্ত প্রত্যেক ব্যক্তির কর্তব্য” । শূন্যস্থান পূরণ করুন।

(ক) জনগণের সেবা করিবার

(খ) রাষ্ট্রের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করিবার

(গ) সরকারের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করিবার

(ঘ) সংবিধানের প্রতি আনুগত্য প্রকাশ করিবার

উত্তর: ক

৫০। বাংলাদেশের প্রধানম্ত্রী হওয়ার জন্য ন্যূনতম বয়স কত দরকার?
(ক) ৩০ বছর      (খ) ২৫ বছর      (গ) ৩৫ বছর      (ঘ) ৪০ বছর

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য জাতীয় সংসদের সদস্য হওয়া আবশ্যক। সংসদ সদস্য নূন্যনতম বয়স ২৫ বছর। তাই প্রধানমন্ত্রী হওয়ার বয়স ২৫ বছর। উল্লেখ্য, বাংলাদেশে রাষ্ট্রপতি হওয়ার বয়স ৩৫ বছর এবং ভোটার হওয়ার জন্য ন্যূনতম বয়স ১৮ বছর। উত্তর: খ

৫১। বাংলাদেশে কোন দেশ থেকে সবচেয়ে বেশি সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগ হয় এবং তখন কোরিয়া ছিল বাংলাদেশে সর্বাধিক বিনিয়োগের দেশ। পরবর্তীতে তেল- গ্যাস খাতে বিদেশি বিনিয়োগ উম্মুক্ত হওয়ার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন কোম্পানি এ খাতে প্রচুর বিনিয়োগ রিপোর্ট ২০১৮ –এর তথ্য মতে বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগে শীর্ষ দেশ যুক্তরাজ্য।

৫২। বর্তমান সরকার কয়টি স্তরে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠার চিন্তা ভাবনা করছেন?

(ক) ৪টি স্তরে     (খ) ৩টি স্তরে      (গ) ২টি স্তরে    (ঘ) ১টি স্তরে

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশে বর্তমানে গ্রামাঞ্চলে মোট তিন স্তরের স্থানীয় সরকার কাঠামো রয়েছে- প্রথম স্তর: ইউনিয়ন পরিষদ, দ্বিতীয় স্তর: উপজেলা পরিষদ ও তৃতীয় স্তর: জেলা পরিষদ। আর শহরাঞ্চলে রয়েছে দুই ধরনের স্থানীয় সরকার ব্যবস্থা- ১. পৌরসভা,২. সিটি কর্পোরেশন। উত্তর: খ

৫৩। জনাব এফ আর খান বাংলাদেশের জন্য গৌরব। তিনি কি ছিলেন?

(ক) স্থপতি                        (খ) ক্যান্সার চিকিৎসক

(গ) আণবিক বিজ্ঞানী              (ঘ) কম্পিউটার বিজ্ঞানী

ব্যাখ্যা: ফজলুর রহমান খান স্ট্রাকচারাল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের অন্যতম পথিকৃৎ। তিনি আমেরিকার শিকাগো শহরে অবস্থিত বিখ্যাত সিয়ার্স টাওয়ারের স্থপতি। তিনি তার স্বতন্ত্র নির্মাণ কৌশলের স্বীকৃতিস্বরুপ লাভ করেছিলেন নানা আন্তর্জাতিক পুরষ্কার ও সম্মাননা। যেমন- ‘কন্সট্রাকশন্স ম্যান অব দ্য ইয়ার’ (১৯৭২), ‘আগা খান পদক’ (১৯৮৩) ইত্যাদি। উত্তর: ক

৪৫। ‘বাঙ্গালীর ইতিহাস’ বইটির লেখক কে?

(ক) নীহাররঞ্জন রায়                     (খ) আর.সি. মজুমদার

(গ) অধ্যাপক আব্দুল করিম            (ঘ) অধ্যাপক সুনীতিকুমার সেন

ব্যাখ্যা: এটি বাঙালিদের নৃতাত্ত্বিক বিশ্লেষণে একটি গবেষণাধর্মী গ্রন্থ। এরুপ ইতিহাস বিষয়ক আরো কিছু গ্রন্থ হলো বাংলা সাহিত্যের ইতিহাস (ড.কাজী দীন মুহম্মদ), মোসলেম বাংলার সামাজিক ইতিহাস (মোহাম্মদ আকরম খাঁ) ইত্যাদি। উত্তর: ক

৫৫। তৈরি পোশাক থেকে বাংলাদেশের রপ্তানি আয়ের শতকরা কত ভাগ আসে (১৯৯৫—৯৬-এর হিসাব মতে)?

(ক) প্রায় ৫০ ভাগ                          (খ) প্রায় ৫৪ ভাগ

(গ) প্রায় ৫৬ ভাগ                           (ঘ) প্রায় ৬০ ভাগ

[ Note: ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি বৈদেশিক মুদ্রা অর্জিত হয় অর্থাৎ বাংলাদেশের সর্বাধিক রপ্তানি আয় আসে তৈরি পোশাক থেকে, ১৪,৩৯৩ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা মোট রপ্তানির ৪১.৫৩%।]

৫৬। জাতিসংঘের সিডও  (Convention on the Elimination of all forms of Discrimination Against Women)- এর Monitoring কমিটির চেয়ারপার্সন একজন  বাঙালি মহিলা। তিনি কে?

(ক) সালামা সোবাহান                             (খ) সালমা খান

(গ) নাজমা চৌধুরী                                  (ঘ) হামিদা হোসেন

ব্যাখ্যা: বাংলাদেশি সালমা খান ১৯৯৭-৯৮ সালে CEDAW-এর চেয়ারপার্সন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে CEDAW-এর  চেয়ারপার্সন ব্রাজিলের সিলভিয়া পিমেনটেল । দায়িত্ব গ্রহণ ২০১২ সালে। বর্তমানে সিডও কমিটিতে বাংলাদেশি সদস্য ইসমত জাহান (১ জানুয়ারি ২০১১-৩১ডিসেম্বর ২০১৪)।উত্তর: খ

৫৭। খুলনা হার্ডবোর্ড মিলে কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহৃত হয় কোন ধরনের কাঠ?

(ক) চাপালিশ     (খ) কেওড়া      (গ) গেওয়া       (ঘ) সুন্দরী

ব্যাখ্যা: সুন্দরবনে পর্যান্ত সুন্দরীকাঠ পাওয়া যায় বলে এটি সহজলভ্য কাঁচামাল। আর এজন্য খুলনা হার্ডবোর্ড মিলে সুন্দরী কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহার কর হয়।উত্তর: ঘ

৫৮। দিনাজপুর জেলার বড়পুকুরিয়ার কিসের খনি প্রকল্প কাজ চলছে?

(ক) কঠিন শিলা       (খ) কয়লা         (গ) চুনাপাথর   (ঘ) সাদামাটি

 

কয়লা। পরবর্তীতে ১৯৯৮ সালে রংপুরের খালাশপীরে আবিষ্কৃত হয় আরেকটি কয়লাক্ষেত্র। এ পর্যন্ত বাংলাদেশে আবিষ্কৃত কয়লাক্ষেত্রে গুলোর মধ্যে বড়পুকুরিয়ার কয়লাই ভূ-পৃষ্ঠের স্বল্প গভীরতায় অবস্থিত । বর্তমানে এখান থেকে কয়লা উত্তোলন শুরু হয়েছে। উত্তর: খ

 

৫৯। বাংলাদেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হচ্ছে। তবে বেসরকারি ক্ষুদ্র বিদ্যুৎকেন্দ্রে খনিজ তেল ব্যবহার করা হয়। উত্তর: ঘ

৬০। ধলেশ্বরী নদীর শাখা নদী কোনটি?

(ক) শীতলক্ষ্যা     (খ) বুড়িগঙ্গা        (গ) ধরলা         (ঘ) বংশী

ব্যাখ্যা: ব্রহ্মপুত্র-যমুনা নদীর উপনদী ধরলা এবং প্রধান শাখানদী পুরনো ব্রহ্মপুত্র ও ধলেশ্বরী। আবার ধলেশ্বরী নদীর প্রশাখা হচ্ছে বুড়িঙ্গা এবং পুরনো ব্রহ্মপুত্র নদীর প্রশাখা হচ্ছে শীতলক্ষ্যা উত্তর: খ

৬১। ‘Existentialism’ কি?

(ক) একটি দার্শনিক মতবাদ             (খ) প্রাণিবিদ্যার একটি তত্ত্ব

(ঘ) ভূবিদ্যার একটি তত্ত্ব                    (ঘ) পদার্থবিদ্যার একটি তত্ত্ব

উত্তর: ক

৬২। ‘Adult Cell’ ক্লোন করে যে ভেড়ার জম্ম হয়েছে তার নাম দেয়া হয়েছে-

(ক) শেলী       (খ) ডলি              (গ) মলি           (ঘ) নেলী

ব্যাখ্যা: যুক্তরাজ্য বা গ্রেট ব্রিটেনের আওতাধীন স্কটল্যান্ডের এডিনবরার রোসলিন ইনস্টিটিউটের সামনে ১৯৯৬ সালের ৫ জুলাই ক্লোন ভেড়া ডলির জন্ম হয়। রোসলিন ইনস্টিটিউটের ভ্রণতত্ত্ববিদ ড. আয়ান উইলমুট ভেড়াটিকে ক্লোন করেন। ১৯৯৭ সালে ডলির জম্মের বিষয়টি ঘোষণা করা হয়। উত্তর: খ

বিষয়: সাধারণ জ্ঞান আন্তর্জাতিক

৬৩। ‘Adult Cell’ ক্লোন করে কোন দেশে একটি ভেড়ার জম্ম হয়েছে?

(ক) যুক্তরাজ্যে     (খ) যুক্তরাষ্ট্রে      (গ) অস্ট্রেলিয়ার     (ঘ) ফ্রান্সে

উত্তর: ক

৬৪। ‘শাহনামা’ – এর লেখক কে?

(ক) কবি ফেরদৌসী                            (খ) মওলানা রুমী

(গ) কবি নিজামী                                   (ঘ) কবি জামি

ব্যাখ্যা: ইরানের সুবিখ্যাত মহাকাব্য ‘শাহনামা’ । মহাকবি ফেরদৌসী ৯৮০-১০১০ খ্রিস্টাবেদ সুদীর্ঘ ৩০ বছর কঠোর পরিশ্রম করে ‘শাহনামা’ রচনা করেন। এর ভাষা ক্লাসিক ফারসি। উত্তর: ক

৬৫। ‘মেসোপটেমিয়া’ এলাকার বেশির ভাগ বর্তমানে কোন দেশে?

(ক) ইরাক                               (খ) ইরান

(গ) তুরস্ক                                (ঘ) সিরিয়া

ব্যাখ্যা: খ্রিস্টপূর্ব ২৫০০ অব্দে টাইগ্রিস ও ইউফ্রেটিস নদীর মধ্যবর্তী উর্বর অঞ্চলে মেসোপটেমীর সভ্যতা গড়ে ওঠে । এ অঞ্চল সিরিয়া, ইরাক ও তুরস্ক জুড়ে বিস্তৃত হলেও অধিকাংশই বর্তমান ইরাকের অন্তর্ভুক্ত । ইরাককে প্রাচীনকালে মেসোপটেমিয়া নামে অভিহিত করা মতো। উত্তর: ক

৬৬। টলেমি কি ছিলেন?

(ক) চিকিৎসক                          (খ) দার্শনিক

(গ) জ্যোতির্বিদ                           (ঘ) সেনাপতি

ব্যাখ্যা: ‘ক্ল্যাডিয়াম টলেমি’ ছিলেন বিখ্যাত জ্যোতির্বিদ। তার বিখ্যাত দুটি গ্রন্থ ‘গাইড টু জিওগ্রাফি’ এবং অ্যালমাজেন্ট’। উত্তর: গ

৬৭। নোবেল পুরস্কারের প্রবর্তক আলফ্রেড নোবেল ধনী হয়েছিলেন-

(ক) তেলের খনির মালিক হিসেবে

(খ) উন্নত ধরনের বিস্ফোরক আবিষ্কার করে

(গ) জাহাজের ব্যবসা করে

(ঘ) ইস্পাত কারখানার মালিক হিসেবে।

ব্যাখ্যা: আলফ্রেড নোবেল জম্মগ্রহণ করেন সুইডেনের স্টকহোমের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে ১৮৩৩ সালের ২১ অক্টোবর । তিনি তার বাবার আবিষ্কৃত নাইট্রোগ্লিসারিনের সাথে ‘কিজেলগুর’ মিশিয়ে তৈরি করেন ‘ডিনামাইট’। এ ডিনামাইট আবিষ্কার করেই তিনি অর্জন করেন প্রচুর অর্থ। বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেল মারা যান ১৮৯৬ সালের ১০ ডিসেম্বর। তার মৃত্যু দিবসে ঘোষণা করা হয় নোবেল পুরষ্কার। উত্তর: খ

৬৮। স্টিফেন হকিং বিশ্বের একজন খুব বিখ্যাত-

(ক) দার্শনিক                                    (খ) পদার্থবিদ

(গ) রসায়নবিদ                                   (ঘ) কবি

ব্যাখ্যা: বর্তমান বিশ্বের বিখ্যাত পদার্থবিদ স্টিফেন হকিং ১৯৪২ সালের ৮ জানুয়ারি জন্মগ্রহন করেন। তার লেখা ‘এ ব্রিফ হিস্ট্রি অফ টাইম’ একটি আলোচিত বই। উত্তর: খ

৬৯। একজন রাজনীতিবিদ সাহিত্যে নোবেল পুরষ্কার পেয়েছেন-

(ক) চার্চিল                                  (খ) কিসিঞ্জার

(গ) দ্য গল                                 (ঘ) রুজভেল্ট

ব্যাখ্যা: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সাহিত্যে সময়ে ১৯৪০-৪৫ এবং পরে ১৯৫১-৫৫ পর্যন্ত ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন উইনস্টন চার্চিল। বিশ্বযুদ্ধের সময়কার ঘটনা নিয়ে রচনা করেন, History of the Second World War । এ গ্রন্থটির জন্য রাজনীতিবিদ চার্চিল সাহিত্যিক হিসেবে ১৯৫৩ সালে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

৭০। ২০০০ সালে অলিম্পিক কোন শহরে অনুষ্ঠিত হবে ?

(ক) বেইজিং (খ) কিসিঞ্জার (গ) দ্য গল (ঘ) রুজভেল্ট

ব্যাখ্যা : ২০০৪ সালে গ্রিসের এথেন্সে ও ২০০৮ সালে চীনের বেইজিং-এ অনুষ্ঠিত হয় । ২০১২ সালের অলিম্পিক অনুষ্ঠিত ব্রিটেনের লন্ডনে । ২০২০ সালে অলিম্পিক অনুষ্ঠিত হবে জাপানের টোকিওতে ।

৭১। সম্প্রতি কুয়ালালামপুর পুরে অনুষ্ঠিত আইসিসি ট্রফিতে কয়টি দেশ অংশগ্রহণ করে?

(ক) ২০        (খ) ২৩          (গ) ২১                  (ঘ) ২২

[ Note: ১৯৯৭ সালে মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে ষষ্ঠ আইসিসি ট্রফি অনুষ্ঠিত হয়। ষষ্ঠ আইসিসি ট্রফিতে কেনিয়াকে পরাজিত করে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হয়। আইসিসি ট্রফির বর্তমান নাম আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপ কোয়ালিফাই। ৭ম আসর অনুষ্ঠিত হয় (১৩ জানুয়ারি-১ ফেব্রুয়ারি ২০১৪) নিউজিল্যাল্ডে , যাতে অংশগ্রহণ করে ১০টি দেশ। ৮ম আসর অনুষ্ঠিত হয় ১০-১৮ জুন ২০১৭, ইংল্যান্ডে । অংশগ্রহণকারী দেশ ৮টি এবং চ্যাম্পিয়ন হয় পাকিস্তান।

৭২। সবচেয়ে শক্ত বস্তু কোনটি?

(ক) হীরা       (খ) গ্রানাইট পাথর       (গ) পিতল         (ঘ) ইস্পাত

ব্যাখ্যা: প্রকৃতিতে প্রাপ্ত সবচেয়ে কঠিন পদার্থ হীরক। এটি কার্বনের একটি রুপ। এটি কাটতে অসংখ্য সমযোজী বন্ধন ছিন্ন করতে হয় বলে হীরা অত্যন্ত শক্ত। বিশুদ্ধ অবস্থায় হীরক বর্ণহীন । তবে আলো আপতিত হলে অভ্যন্তরীণ প্রতিফলনের ফলে এটি উজ্জ্বল দেখায়। এক্স-রে এর ভেতর দিয়ে বাঁধা না পেয়ে বেরিয়ে আসতে পারে। উত্তর: ক

৭৩। জাতিসংঘের কোন মহাসচিব বিমান দুর্ঘটনায় মারা যায়?

(ক) ট্রিগভেলি                            (খ) কুর্ট ওয়াল্ডহেইম

(গ) দ্যাগ হ্যামারশোল্ড                  (ঘ) উ থান্ট

ব্যাখ্যা: কঙ্গোতে গৃহযুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে বিমানে যাত্রাকালে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৯৬১ সালে জাতিসংঘের দ্বিতীয় মহাসচিব দ্যাগ হ্যামারশোল্ড (সুইডেন) নিহত হন। উত্তর: গ

৭৪। ‘মোনালিসা’ চিত্রটির চিত্রকর কে?

(ক) মাইকেল এঞ্জেলো                           (খ) লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চি

 

(গ) ভ্যানগণ                                        (ঘ) পাবলো পিকাসো

ব্যাখ্যা: মোনালিসা চিত্রটির চিত্রকর হলেন ইতালির বিখ্যাত শিল্পী  লিওনার্দো দ্য ভিঞ্চি। ‘মোনালিসা’ বর্তমানে ফ্রান্সের ল্যুভর মিউজিয়ামে সংরক্ষিত আছে। উত্তর: খ

৭৫। কোন দেশে ‘তালেবান’ নামক রাজনৈতিক দল ক্ষমতায় অধিষ্ঠিত?

(ক) সুদান                          (খ) তিউনেশিয়া

(গ) ইয়েমেন                       (ঘ) আফগানিস্তান

[ Note: ১৯৯৭ তালোবান নামক রাজনৈতিক গোষ্ঠী আফগানিস্তানের ক্ষমতা অধিষ্ঠিত ছিল। ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলার পর ওসামা বিন লাদেনকে আশ্রয়দানের অজুহাত তুলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান আক্রমণ করে এবং ২০০২ সালে তালেবানদের উচ্ছেদ করে।

৭৬। সূর্য থেকে পৃথিবীতে আলো আসতে কতক্ষণ সময় লাগে?

(ক) ৮.৩২মিনিট                          (খ) ৯.১২ মিনিট

(গ) ৭.৯৬ মিনিট                           (ঘ) ১০.৫৬ মিনিট

ব্যাখ্যা: পৃথিবী থেকে সূর্যের দূরত্ব ৯ কোটি ৩০ লাখ মাইল এবং আলোর গতি প্রতি সেকেন্ডে ১ লাখ ৮৬ হাজার মাইল । এ গতিতে সূর্য থেকে পৃথিবীতে আলো আসতে সময় লাগে ৮ মিনিট ২০ সেকেন্ড বা ৮.৩২ মিনিট। উত্তর: ক

৭৭। কোনটি স্তন্যপায়ী প্রাণী নয়?

(ক) হাতি         (খ) কুমির              (গ) তিমি           (ঘ) বাদুর

ব্যাখ্যা : স্ত্রী প্রাণী কর্তৃক সন্তান উৎপাদনের পর যেসব প্রাণী মায়ের দুধ পান করে বড়  হয় সেগুলোকে স্তন্যপায়ী প্রাণী বলে। উপরিউক্ত প্রাণীগুলোর মধে একমাত্র কুমিরই স্তন্যপায়ী নয় । হাতি, তিমি বাদুর সন্তানকে বুকের দুধ খাওয়ায় এবং বাচ্চা প্রসব করে। উত্তর: খ

৭৮। এই শতাব্দীর সবচেয়ে উজ্জ্বল ধূমকেতু কোনটি?

(ক) হেলির ধূমকেতু                               (খ) হেলবপ ধুমকেতু

(গ) শুমেকার-লেভী ধূমকেতু                      (ঘ) কোনোটিই নয়

ব্যাখ্যা: হেলবপ ধূমকেতুকে বিগত শতাব্দীর উজ্জ্বলতম ধূমকেতু হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সৌখিন জ্যোতির্বিদ এলান হেল ও টমাস বপ জুলাই ১৯৯৫ এ ধূমকেতু আবিস্কার করেন। আবিষ্কারকদ্বয়ের নামানুসারে এ ধূমকেতুর নামকরণ করা হয়েছে। হেলবপ ধূমকেতু ১৯৯৭ সালের মার্চ- এপ্রিল মাসে বাংলাদেশের আকাশে দেখা গিয়েছিল। ২ হাজার বছর পর আবার ধূমকেতুটি পৃথিবীর আকাশে ফিরে আসবে। উত্তর: খ

৭৯। ‘গ্যালিলিও’ কি?

(ক) মঙ্গল গ্রহের একটি উপগ্রহ

(খ) বৃহস্পতি গ্রহের একটি উপগ্রহ

(গ) শনি গ্রহের একটি উপগ্রহ

(ঘ) পৃথিবী থেকে পাঠানো বৃহস্পতির একটি কৃত্রিম উপগ্রহ

উত্তর: ঘ

৮০। বিদ্যুৎকে সাধারণ মানুষের কাজে লাগানোর জন্য কোন বৈজ্ঞানিকের অবদান সবচেয়ে বেশ?

(ক) বেঞ্জামিন ফ্রাম্কলিন                     (খ) আইজ্যাক নিউটন

(গ) টমাস এডিসন                             (ঘ) ভোল্টা

ব্যাখ্যা: মার্কিন বিজ্ঞানী টমাস আলভা এডিসন ১৮৪৭ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি কানাডার মিলানে জম্মগ্রহণ করেন। তিনি বিজ্ঞানকে সাধারণ মানুয়ের কাজে লাগানোর জন্য বিভিন্ন ব্যবহারিক যন্ত্র আবিষ্কার করেন। বৈদ্যুতিক বাল্ব, সিনেমাস্কোপ, ফনোগ্রাম ইত্যাদি তারই আবিষ্কার । ১৯৩১ সালের ১৮ অক্টোবর তিনি মৃত্যুবরণ করেন। উত্তর: গ

৮১। ভূ-পৃষ্ঠের সৌরদীপ্ত ও অন্ধকারাচ্ছন্ন অংশের সংযোগ স্থলকে কি বলে?

(ক) ছায়াকৃত্ত     (খ) গুরুবৃত্ত              (গ) ঊষা         (ঘ) গোধূলি

ব্যাখ্যা: কোনো নির্দিষ্ট সময়ে পৃথিবীর একদিকে রাত এবং অপর দিকে দিন হয়। অর্থ্যাৎ পৃথিবীর একদিক আলোকিত থাকে এবং অপর দিক অন্ধকারাচ্ছন্ন থাকে। পৃথিবীর এ আলোকিত ও অন্ধকারাচ্ছন্ন অংশের সীমারেখাকে ছায়াবৃত্ত বলে। প্রভাতের কিছুক্ষণ পূর্বে যে ক্ষীণ আলো থাকে সে সময়কে বলা হয় গোধূলি । উত্তর: ক

৮২। সমুদ্র পৃষ্ঠে বায়ুর স্বাভাবিক চাপ কত?

(ক) ৭.৯ সে.মি                    (খ) ৭৬ সে.মি

(গ) ৭২ সে.মি                  (ঘ) ৭৭ সে.মি

ব্যাখ্যা: বায়ু তার ওজনের জন্য চতুর্দিকে যে চাপ দেয় তাকে বায়ুর চাপ বলে। সমুদ্র সমতল অর্থাৎ নিম্মস্তরে বায়ুর চাপ সবচেয়ে বেশি। কারণ নিম্মস্তরে বায়ুর ওজন ও গভীরতা বেশি থাকে। উত্তর: খ

৮৩। ভূমধ্যসাগর ও আটলান্টিক মহাসাগরের মধ্যে কোন প্রাণালীর    অবস্থান?

(ক) হরমুজ (খ) জিব্রাল্টার (গ) বসফরাস (ঘ) দার্দানেলিস

ব্যাখ্যা : জিব্রাল্টার প্রাণালী মরক্কো ও স্পেনকে পৃথক করেছে ।হরমুজ, দার্দানেলিশ ও বসফরাস প্রাণালী যথাক্রমে পরস্য উপসাগর- ওমান উপসাগর, ইজিয়ান সাগর – মর্মর সাগর, মর্মর সাগর – কৃষ্ণ সাগরের মধ্যে অবস্থিত ।

৮৪। আকাশে উজ্জ্বলতম নক্ষত্র কোনটি ?

(ক) ধ্রুবতারা (খ) প্রক্সিমা সেন্টারাই (গ) লুব্ধক (ঘ) পুলহ

ব্যাখ্যা : আকাশের উজ্জ্বলতম নক্ষত্র হচ্ছে লুব্ধক । ধ্রুবতারা হচ্ছে উত্তর গোলার্ধের আকাশের আপাত স্থির উজ্জ্বল নক্ষত্র । প্রক্সিমা সেন্টারাই পৃথিবীর ( সূর্য ছাড়া ) নিকটতম নক্ষত্র এবং পুলহ হচ্ছে সপ্তর্ষিমণ্ডলের একটি নক্ষত্র ।

৮৫ । জোয়ার – ভাটার তেজকটাল কখন হয় ?

(ক) অমাবস্যায়  (খ) একাদশীতে (গ) অষ্টমীতে (ঘ) পঞ্চমীতে

ব্যাখ্যা : অমাবস্যায় চন্দ্র ও সূর্য পৃথিবীর একই দিকে একই সরল রেখায় থাকে বলে চন্দ্র ও সূর্যের আকর্ষণ শক্তি একই দিক থেকে সঙ্গে কার্যকর হয় । উভয়ের মিলিত আকর্ষণ প্রবল বেগে কাজ করে বলে প্রচণ্ড জোয়ার হয় ।

গনিত

৮৬ ।একটি সংখ্যার তিনগুণের সাথে দ্বিগুণ যোগ করলে ৯০ হয় । সংখ্যাটি কত ?

(ক) ১৬ (খ) ১৮ (গ) ২০ (ঘ) ২৪

ব্যাখ্যা : মনে করি, সংখ্যাটি ক

৩ক+২ক=৯০

বা, ৫ক=৯০

ক=১৮

৮৭। পরপর দশটি সংখ্যার প্রথম ৫টির যোগফল ৫৬০ হলে , শেষ ৫টির যোগফল কত ?

(ক) ৫৮৫ (খ) ৫৮০ (গ) ৫৭৫ (ঘ) ৫৭০

ব্যাখ্যা : মনে করি, প্রথম সংখ্যা ক

ক+ক+১+ক+২+ক+৩+ক+৪=৫৬০

বা, ৫ক = ৫৬০-১০

বা, ক=১১০

শেষ ৫টির যোগফল =ক+৫+ক+৬+ক+৭+ক+৮+ক+৯

=৫ক+৩৫=৫১১০+৩৫=৫৫০+৩৫=৫৮৫

৮৮। কোন ভগ্নাংশটি থেকে বড় ?

(ক)        (খ)     (গ)           (ঘ)

ব্যাখ্যা : =০.৬৬০০ খ.  =০.৭২৭২ গ. = ০.৬০০০ ঘ. = ০.৪৮১৪

ভগ্নাংশটি  থেকে বড় ।

৮৯। ১২ ও ৯৬ এর মধ্যে (এ দুটি সংখ্যাসহ ) কয়টি সংখ্যা ৪ দ্বারা বিভাজ্যে ?

(ক) ২১ (খ) ২৩ (গ) ২৪ (ঘ) ২২

ব্যাখ্যা : ১ থেকে পর্যন্ত ৪ দ্বারা বিভাজ্য সংখ্যা আছে = ৯৬৪ = ২৪ টি কিন্তু এর মধ্যে ৪ ও ৮, ৪ দ্বারা বিভাজ্য

১২ ও ৯৬ এর মধ্যে ৪ ধারা বিভাজ্য সংখ্যা = (২৪-২) =২২টি

উত্তর: ঘ

৯০। ৬, ৮, ১০ এর গাণিতিক গড়  ৭, , এবং কোন সংখ্যার গাণিতিক গড়ের সমান?

(ক) ৫          (খ) ৮                  (গ) ৬                (ঘ) ১০

ব্যাখ্যা: ধরি, সংখ্যাটি ‘ক’

৬+৮১০= ৭+৯ =১৬

বা, ২৪=১৬ + ক

ক= ৮

উত্তর: খ

৯১। যদি x+5y=16 এবং x=3y হয়, তাহলে y= কত?

(ক)   -24          (খ) -2              (গ)  8            (ঘ) 2

ব্যাখ্যা: x+5y =16

বা, 3y+ [x=3y]

বা, 8y=16

y=2

উত্তর: ঘ

৯২। ‘ক’ ও ‘খ’ দুটি সংখ্যান । ‘ক’ এর এবং ‘খ’ এর যোগ করলে ৪৫ হয়। এর  এবং ক এর যোগ করলে ৫০ হয় । ‘ক’ ও ‘খ’ এর মান কত?

(ক) ক=৫০, খ= ৬০                          (খ) ক= ৬০, খ= ৫০

(গ) ক=৪০, খ= ৪৮                            (ঘ) ক= ৬০, খ= ৪৮

ব্যাখ্যা: + = ৪৫ ……………………………. (i)

 

+= 50 …………………………….. (ii)

  • নং সমীকরণকে ৩০ এবং (ii) নং সমীকরণকে ২০ দ্বারা গুণ করে পাই,

১৫ক + ১০খ= ১৩৫০………………………………….. (iii)

৮ক + ১০ খ= ১০০০ ……………………………………(iv)

(iii)- (iv)

১৫ক + ১০খ – ৮ক – ১০খ = ১৩৫০-১০০০

বা, ৭ক=৩৫০

বা ক= ৫০

ক এর মান (i) নং সমীকরণে বসিয়ে পাই,

+

ev, L = 60

উত্তর ক=৫০, খ= ৬০

উত্তর: ক

 

৯৩। তিনটি মেশিন একটি কাজ যথাক্রমে ৫, ৬ ও ৭ ঘন্টায় করতে পারে। দুটি মেশিনে সর্বোচ্চ ক্ষমতায় কাজ করে এক ঘন্টায় কতটুকু কাজ করতে পারবে?

(ক)                         (খ)

(গ)                           (ঘ)

ব্যাখ্যা: মেশিন তিনটি দ্বারা ১ ঘন্টায় কাজ করা যায় যথাক্রমে + ও অংশ ।

দুটি মেশিন সর্বোচ্চ ক্ষমতায় কাজ করলে। + = অংশ কাজ করা যায়।উত্তর: ক

৯৪। একটি কম্পিউটার বিজ্ঞান পরীক্ষায় ৩০% পরীক্ষার্থী পাস করেছে। যারা পাস করতে পারেনি তাদের ১২ জন কম্পিউটার বিজ্ঞান কোর্সে অংশগ্রহণ করেছে এবং ৩০ জন উক্ত কোর্সে অংশগ্রহন করেনি। কতজন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহন করেছে?

(ক) ৬০ জন       (খ) ৮০ জন           (গ)  ১০০জন         (ঘ) ১২০ জন

ব্যাখ্যা: পাস করতে পারেনি = (১০০-৩০)% = ৭০%

৭০% পরীক্ষার্থী        = (১২+৩০)জন =৪২জন

১%      ,,          =

১০০      ,,         =,, = ৬০ জনা

উত্তর: ক

৯৫। ৩৬০০ টাকা করে দুটি চেয়ার বিক্রয় করা হয়েছে। একটি ২০%লাভে এবং অন্যটি ২০% লোকসানে বিক্রয় করা হয়েছে। সব মিলিয়ে কত লোকসান হয়েছে?

(ক) লাভ-লোকসান কিছুই হয়নি                   (খ) ৯০০টাকা

(গ) ৩০০টাকা                                         (ঘ) ৬০০টাকা

ব্যাখ্যা: ১ম চেয়ারে ২০%লাভ অর্থাৎ

১ ম  ,, ক্রয়মূল্য = = ৩০০০ টাকা

২য় চেয়ার ২০% লোকসান অর্থাৎ

২য় চেয়ার ক্রয়মূল্য = = ৪৫০০টাকা

মোট বিক্রয় মূল্য = (৩৬০০+৩৬০০) টাকা = ৭২০০টাকা

এবং মোট ক্রয় মূল্য =   (৩০০+৪৫০০) টাকা    = ৭৫০০টাকা

মোট লোকসান (৭৫০০-৭২০০) টাকা = ৩০০টাকা

উত্তর: গ।

৯৬। সম্পূর্ণ খালি একটি চৌবাচ্চা একটি পাইপ দিয়ে ৫ ঘন্টায় সম্পূর্ণ ভর্তি করা যায়। দ্বিতীয় একটি পাইপ দিয়ে চৌবাচ্চাটি ভর্তি করতে ৩ ঘন্টা লাগে। দুটি পাইপ একসাথে ব্যবহার করে চৌবাচ্চাটির অংশ ভর্তি করতে কত সময় লাগবে?

(ক)  ঘন্টা     (খ)  ঘন্টা       (গ)   ঘন্টা          (ঘ) ঘন্টা

 

ব্যাখ্যা: ১ম পাইপ দ্বারা ১ ঘন্টায় ভর্তি হয় অংশ

এবং ২য়  ,,        ,,    ১  ,,         ,,    ,, অংশ

দুটি পাইপ          ,,    ১  ,,         ,,    ,, +  অংশ

অংশ ভর্তি হয় ১ ঘন্টায়

,,     ,,     ,,  =   =ঘণ্টায়।

উত্তর: গ

৯৭। ঢাকা থেকে টাঙ্গাইলের দূরত্ব ৪৫ মাইল। করিম ঘণ্টায় ৩ মাইল বেগে হাঁটে এবং রহিম ঘণ্টায় ৪ মাইল বেগে হাঁটে । করিম ঢাকা থেকে রওয়ানার এক ঘণ্টা পর রহিম টাঙ্গাইল থেকে ঢাকা রওয়ানার হয়েছে। রহিম কত মাইল হাঁটার পর করিমের সাথে দেখা হবে?

(ক) ২৪          (খ) ২৩                    (গ) ২২                     (ঘ) ১১

উত্তর: (ক) ২৪         

ব্যাখ্যা: করিম ১ ঘণ্টায় যায় ৩ মাইল

বাকি দূরত্ব = (৪৫-৩) মাইল = ৪২ মাইল

করিম ও রহিম ১ ঘণ্টায় যায় = (৩+৪) মাইল = ৭ মাইল

দু’জনের ৪২ মাইল যেতে সময় লাগে ঘণ্টা = ৬ ঘণ্টা

৬ ঘণ্টায় রহিম হাঁটে = (৪৬) মাইল = ২৪ মাইল।

 

No comments found.